মেইন ম্যেনু

ভুয়া বিপদসংকেত দিল ফেসবুক

ব্যবহারকারীদের একটি ভুয়া বিস্ফোরণের বিপদ সংকেত দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক।

২৭ ডিসেম্বর থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককের ব্যবহারকারীরা এমন একটি সংকেত পেয়েছেন। কিন্তু আসলে ওই স্থানে এমন দুর্ঘটনা ঘটেনি।

ফেসবুক বলছে, তারা নির্ভরযোগ্য তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে সেফটি বাটন চালু করে থাকে।

ফেসবুকের তথ্যমতে, মঙ্গলবার স্থানীয় রাত ৯টায় ‘দ্য এক্সপ্লোমান ইন ব্যংকক, থাইল্যান্ড’ নামে একটি সেফটি পেজ ওপেন করা হয়।

ফেসবুকের একটি ফিচার রয়েছে, যেখানে কোনো দুর্ঘটনাস্থলের ব্যবহারকারীরা নিজেদের অবস্থা জানাতে পারে। এজন্য ফেসবুক ওই ঘটনার জন্য সেফটি বাটন ওপেন করে। ওই স্থানের ব্যবহারকারীরা সেফটি বাটনে ক্লিক করে তার বন্ধুদের জানাতে পারে যে, সে নিরাপদে আছে।

প্রকৃতপক্ষে ওই দিন এক বিক্ষোভকারী ব্যাংককের একস্থানে আগুন জ্বালিয়েছিলেন।

এরপরে ফেসবুক ওই এলাকায় ভুলবশত সেফটি মার্ক ওপেন করে।

ফেসবুকের অনেক ব্যবহারকারী এই ভুল সংবাদটি ছড়িয়েছে।

সম্প্রতি ভুল সংবাদ ছড়ানোর অভিযোগ ওঠেছে ফেসবুকের বিরুদ্ধে।