মেইন ম্যেনু

অর্ধশতাধিক ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান বিলীন হয়ে গেছে মেঘনার বুকে

ভোলা-লক্ষ্মীপুর রুটের ফেরি চলাচল বন্ধ

অবিরাম দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় উত্তাল মেঘনা নদীর ঢেউয়ের আঘাতে ভোলার ইলিশা ফেরিঘাটের সংযোগ সড়ক বিলীন হয়ে যাওয়ায় অনির্দিষ্টকালের জন্য ভোলা-লক্ষ্মীপুর রুটের ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। একই সাথে বিলীন হয়ে গেছে অর্ধশত ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান।

গত ৩-৪ দিনের দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে মেঘনা নদী প্রচণ্ড উত্তাল। এর ফলে ভোলা-লক্ষ্মীপুর রুটের ইলিশা পাকার মাথা নামক স্থানটি উত্তাল মেঘনা নদীর ঢেউয়ের আঘাতে আজ ভোর রাতে সম্পূর্ণ বিলীন হয়ে যায়। ফলে ভোলা-লক্ষ্মীপুর রুটের ফেরি চলাচল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ হয়ে গেছে।

একই সঙ্গে বন্ধ হয়ে গেছে এই রুট দিয়ে চলাচলকারী বরিশাল, খুলনাসহ দক্ষিণাঞ্চলীয় ২১টি জেলার যানবাহন চলাচল।অপরদিকে ঘাটে ফেরি ভিড়ানো থাকলেও রাস্তা ভেঙ্গে যাওয়ায় গাড়ি নামতে পারছে না। ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন ঈদে বাড়ি আসা এবং এখন কর্মস্থলে ফিরে যাওয়া হাজার হাজার মানুষ। অপরদিকে একই সঙ্গে বিলীন হয়ে যায় পাকার মাথা নামক স্থানে থাকা একটি মাছঘাটের অর্ধশত ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান। নদীর ভাঙ্গন তীব্র হওয়ায় এলাকার মানুষ দ্রুত ঘর-বাড়ি ভেঙ্গে সরিয়ে নিচ্ছে।

এ বিষয় ফেরির দায়িত্বে থাকা বিআইডব্লিইটিসি’র ঘাট ম্যানেজার মো: আবু আলম জানান, উত্তাল মেঘনা নদীর ঢেউয়ের আঘাতে ভোলা ইলিশা ফেরিঘাটের সংযোগ সড়কটি ভেঙ্গে যাওয়ায় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ হয়ে গেছে ভোলা-লক্ষ্মীপুর রুটের ফেরি চলাচল। কবে নাগাদ চালু করা সম্ভব তা বলা যাচ্ছে না।