মেইন ম্যেনু

ভোটের লড়াইয়ে ২১ দল

আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় পৌর নির্বাচনে অংশ নিতে ২১টি রাজনৈতিক দলের প্রার্থীরা তাদের মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। মেয়র পদে মোট মনোনয়ন জমা পড়েছে ১ হাজার ২১৯টি। এরমধ্যে দলীয় ৭১১টি ও স্বতন্ত্র ৫০৮টি।

রোববার নির্বাচন কমিশনের উপ-সচিব শামসুল আলম প্রাথমিকভাবে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জাকের পার্টি, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ, গণতন্ত্রী পার্টি ও গণফোরাম প্রার্থী দেয়ার বিষয়ে ক্ষমতাপ্রাপ্ত ব্যক্তির তালিকা দিলেও কোনো প্রার্থী তাদের দলের পক্ষে মনোনয়ন গ্রহণ করেনি।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, নিবন্ধিত ৪০টি দলের মধ্যে প্রার্থী দেয়ার বিষয়ে ২৫টি দল কমিশনকে জানিয়েছিল। এরমধ্যে চারটি দলের মনোনয়নপত্র পাওয়া যায়নি।

দল ও প্রার্থী সংখ্যা
দলের নাম প্রার্থী সংখ্যা
আওয়ামী লীগ ২৩৯
জাতীয় পার্টি ৯১
বিএনপি ২৩৪
জাসদ ২৬
বিকল্প ধারা ০১
বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি ০১
ওয়ার্কার্স পার্টি ০৯
জাতীয় পার্টি (জেপি) ০৬
বিএনএফ ০১
এনপিপি ১৭
পিডিপি ০১
খেলাফত মজলিশ ০৮
এলডিপি ০২
বাসদ ০১
সিপিবি ০৪
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ৬১
বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট ০৪
ইসলামী ঐক্যজোট ০৩
বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন ০১
ন্যাপ ০১

পাইকগাছা পৌরসভা নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগের প্রত্যয়নপত্রসহ একজন মনোনয়ন জমা দিলেও প্রত্যয়নপত্র ছাড়া নিজেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী দাবি করে দুজন মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। এছাড়া বেতাগী পৌরসভাতেও আওয়ামী লীগ থেকে একজন প্রার্থীকে প্রত্যয়নপত্র প্রথমে দেয়া হলেও পরে তা প্রত্যাহার করে অন্য প্রার্থীকে প্রত্যয়নপত্র দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে মোট ১৩ হাজার ৬৮৯ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এরমধ্যে মেয়র পদে ১ হাজার ২১৯ জন সম্ভাব্য প্রার্থী রয়েছেন। সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ২ হাজার ৬৬৮ জন ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৯ হাজার ৭৯৮ জন সম্ভাব্য প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, আজ (রোববার) মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের শেষ দিন। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ১৩ ডিসেম্বর। ১৪ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ করা হবে। আর ২৩৪ পৌরসভায় ভোট গ্রহন করা হবে ৩০ ডিসেম্বর।

প্রাথমিকভাবে ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ২৩৬টি পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও আদালতের নির্দেশে মংলা ও মানিকগঞ্জের সিংগাইর পৌর নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে।