মেইন ম্যেনু

ভোলার মনপুরায় স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন

ভোলার বিচ্ছিন্ন দ্বীপ মনপুরা উপজেলায় এই প্রথমবার দেশের অন্যান্য স্থানের ন্যায় অনুষ্ঠিত হয়েছে স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন। ৩টি ক্যাটাগরিতে উপজেলার ৩টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৩ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে অনুকরনীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে উপজেলা সদরে অবস্থিত পুরনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হাজীর হাট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

৮ আগষ্ট শনিবার প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব ভবনে অনুষ্ঠিত নির্বাচন চলাকালীন সময়ে জানা যায়, চারিদিকে বিরাজ করছে উৎসব মূখর পরিবেশ। স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী অর্থাৎ ভোটার’রা এখানে ওখানে বসে গালপল্পে মশগুল। কি হয় ফলাফলে, প্রার্থীরা ভূগছেন এ টেনশনে। প্রার্থীদের পক্ষ অবলম্বন করে ছাত্র-ছাত্রীরা স্কুলের প্রতিটি দেয়াল পোস্টারে পোস্টারে সেঁটে দিয়েছে। এযেন অন্য এক স্কুলের অন্য এক দেয়াল।

অন্য দিনের তুলনায় আজকের স্কুলটি একটি ভিন্ন। সেজেছে অন্য এক সাজে। স্কুল সাজানোর এ ভূমিকাই পালন করেছে প্রার্থীদের সমর্থকেরা। একটা সুশৃঙ্খল পরিবেশ। ছাত্র-ছাত্রীরা লাইনে দাড়িয়ে তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিচ্ছে। কেউ কাউকে বাঁধা দিচ্ছেনা। বরং অন্যকে সহযোগীতা করছে ভোট প্রদানে। স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচনের বিধান অনুসারে ৩ সদস্যের নির্বাচন কমিশন এই নির্বাচনের সার্বিক দায়িত্ব পালন করে। স্কুলের শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে নেওয়া দশম শ্রেনীর মেধাবী ছাত্র বিন ইয়ামিন সিফাত প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করে। অন্য দুই কমিশনার হলো সানজিদা আক্তার রিয়া এবং মোঃ সজিব। নির্বাচনে মোট ২৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করে। সকাল ৮টা থেকে ভোটের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। যা বিরতিহীনভাবে চলে বেলা ১টা পর্যন্ত। নির্বাচনের কার্যক্রম পরিদর্শন করেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা খাঁন মোঃ টিপু সুলতান। এছাড়া মনপুরা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এবং মনোয়ারা বেগম মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক মোঃ মাহবুবুল আলম শাহীন, সাবেক সভাপতি আমির হোসেন হাওলাদার, প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল্লাহ জুয়েল, মনোয়ারা বেগম মহিলা কলেজের সহকারী গ্রন্থাগারিক, সাংবাদিক সীমান্ত হেলাল’সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ নির্বাচনের কেন্দ্র পরিদর্শনে যান।

প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক মোঃ আলমগীর হোসেনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে কয়েকজন শিক্ষক নির্বাচন পরিচালনায় ছাত্র-ছাত্রীদের সহযোগীতা করেন। বেলা ১টায় ভোটারদের ভোট প্রদানশেষে শুরু হয় ভোট গননার কাজ। ভোট গননায় স্কুলের বেশ কয়েকজন ছাত্র-ছাত্রীর সহযোগীতা নেন নির্বাচন কমিশন। ভোটের ফলাফলে ষষ্ঠ শ্রেনীতে মোঃ সানাউল্লাহ শরীফ, সপ্তম শ্রেনীতে মোঃ আব্দুর রহিম, অষ্টম শ্রেনীতে ফারজানা রহমান শম্পা এবং মোঃ মনির, নবম শ্রেনীতে মোঃ জাকির হোসেন এবং ইসরাত জাহান রিক্তা, দশম শ্রেনীতে মোঃ ফারুক হোসেন অপু এবং ইমাম হোসেন বাবু নির্বাচিত হয়েছে।

এদিকে খোজ নিয়ে জানা গেছে, উত্তর সাকুচিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়(কারিগরি) এবং চরফৈজুদ্দিন ফকিরের হাট দাখিল মাদ্রাসায়ও স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।