মেইন ম্যেনু

ভোলার লালমোহনে দুই ছিনতাইকারীকে পালাবার সময় হাতেনাতে আটক

ভোলার লালমোহনে ছুরি ঠেকিয়ে ছিনতাই করা টাকা নিয়ে পালাবার সময় জনতার ধাওয়ায় দুই ছিনতাইকারী হাতেনাতে ধরা পড়েছে। রোববার দুপুরে লালমোহন সাজির চৌমুহনী এলাকা থেকে টাকা ছিনতাই করে পালাবার সময় চরভূতা মুগুরিয়া এলাকা থেকে আটক হয় ছিনতাইকারী মামুন ও সুমন। পরে তাদের জনতার রোষানল থেকে পুলিশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। আটককৃতদের কাছ থেকে ছিনতাই করা টাকা ও ছুরিসহ একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে পুলিশ।জানা গেছে, লালমোহন সাজির চৌমুহনী এলাকার হারুনের স্ত্রী ফাহিমা বেগম উত্তরা ব্যাংক থেকে ১লক্ষ টাকা তুলে বাড়ি রওয়ানা হলে তার পিছু নেয় লালমোহন ওয়েস্টার্নপাড়া এলাকার সাফু হাওলাদারের ছেলে সুমন ও ওয়েস্টার্নপাড়ার ফার্মেসীর মালিক রমাগঞ্জের আজাহার রোড এলাকার মৃত নুরুজ্জামানের ছেলে মামুন। দুই ছিনতাইকারী মোটরসাইকেলযোগে মাথায় হেলমেট পড়ে সাজির চৌমুহনী এলাকায় ফাহিমা বেগম ও তার সঙ্গি গাড়ি থেকে নামলে গতিরোধ করে দাঁড়ায়। তারা ফাহিমার গলায় ছুরি ঠেকিয়ে ১লক্ষ টাকাসহ ব্যানেটি ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে মোটরসাইকেল দ্রুত বেগে ছেড়ে পালানোর চেষ্টা করে। পথিমধ্যে চরভূতার মুগুরিয়া এলাকায় মোটরসাইকেলের তেল শেষ হয়ে গেলে গাড়ি রেখে দৌড়ে পালাতে শুরু করে। এসময় স্থানীয় জনতা তাদের আটক করে। খবর শুনে লালমোহন থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সুমন ও মামুনকে আটক করে হরিগঞ্জ বাজারে আনলে কয়েকশত উত্তেজিত এলাকাবাসী ছিনতাইকারীদের গণধোলাই দেওয়ার চেষ্টা করে। পরে লালমোহন থানা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে উত্তেজিত জনতার হাত থেকে ছিনতাইকারীদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি)আকতারুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।