মেইন ম্যেনু

ভোলায় আগুনেপুরে ৫ বসতঘর ছাই: কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

ভোলা সদর উপজেলার উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের ফরাজি বাড়িতে শনিবার সন্ধ্যায় আগুনে পুড়ে পাঁচটি বসত ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে প্রায় কোটি টাকার মালামাল ক্ষতি হয়েছে। আগুনে পুড়ে অন্তত পাঁচ জন আহত হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র ও পুলিশ জানায়, শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে ভোলা সদর উপজেলার উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের ফরাজি বাড়িতে কামালের রান্না ঘরের চুলা থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহুর্তের মধ্যে আগুনের লেলিহান শিখা আশপাশের ঘরে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে প্রায় দুই ঘন্টাব্যাপী চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

এর আগেই ওই বাড়ির কামাল ফরাজি, নিজাম ফরাজি, ইদ্রিস ফরাজি, রফিকুল ইসলাম ফরাজি ও লোকমান ফরাজির বসত ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আগুনে ওই সব ঘরের ধানসহ প্রায় কোটি টাকার বিভিন্ন মালামাল ক্ষতি হয়েছে বলে ঘরের মালিকরা দাবি করেন।

আগুনে পুড়ে কামাল, ফারুকসহ অন্তত পাঁচ জন আহত হন। আহতদের ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন মনসুর জানান, পুড়ে যাওয়া প্রত্যের ঘরে অন্তত ৫০ মন করে ধান ছিল। সেগুলো আগুনে সম্পূর্ণ পুড়ে ছাই হয়ে যায়। আগুন লাগার বিষয়টি প্রশাসনকে জানানো হয়েছে।

তিনি ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যের আবেদন জানান। খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে ভোলা ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট অফিসার মোঃ সাহাবুদ্দিন জানান, রান্না ঘরের চুলা অথবা বৈদ্যুতিক সর্টসার্কিট থেকে আগুন সূত্র পাত হতে পারে। আগুনে তিনটি ঘর সম্পূর্ণ ও দুইটি ঘর আংশিক পুড়ে যায়। এতে আহত হন অন্তত ২ জন। তবে, ক্ষয়ক্ষতির পরিমান এখনো নিরুপন করা যায়নি বলে জানান ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা।