মেইন ম্যেনু

ভোলা মনপুরায় যুবতীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার

ভোলার বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা মনপুরার কেওড়া বাগান থেকে যুবতীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান চৌকিদার পাঠিয়ে লাশটিকে বাগান থেকে এনে বেড়ির পাড়ে রেখেছেন। পরে পুলিশে খবর দিলে এসআই ফিরোজের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। লাশটি ময়না তদন্তের জন্য ভোলা মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে বলে থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোমবার(২৮ সেপ্টেম্বর)সকাল ১০টায় উপজেলা সদর থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দক্ষিনে উত্তর সাকুচিয়া ইউনিয়নের বাংলাবাজারের পশ্চিম পাশের লতাখালী নামক স্থানে কেওড়া বাগানে এক যুবতীর গলাকাটা লাশ দেখতে পায় স্থানীয়রা। বয়স আনুমানিক ১৮। গায়ের রং শ্যমলা। পরনে ছিল সেলোয়ার কামিজ। কান, নাক এবং দুই হাতে বাজারের কেনা কম দামীয় অলংকার ছিল। মেয়েটিকে অন্য কোন স্থান থেকে এনে ঐ কেওড়া বাগানে হত্যা করে ফেলে রেখে গেছে অথবা জোয়ারের সাথে ভেসে লাশটি ঐ কেওড়া বাগানে এসে আটকে আছে বলে ধারনা করছেন স্থানীয়রা।

তবে মেয়েটির বাড়ি মনপুরার কোন স্থানে নয় বলেও ধারনা তাদের। এব্যাপারে উত্তর সাকুচিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, লতাখালী কেওড়া বনে একটি মেয়ের গলাকাটা লাশ দেখতে পেয়ে আমাকে জানায়। আমি চৌকিদার পাঠিয়ে লাশটিকে বেড়ীর পাশে এনে রেখে পুলশকে জানাই।মনপুরা থানার অফিসার ইনচার্জ হানিফ সিকদার বলেন, ঘটনাস্থলে এসেছি। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে বলে তিনি জানান।