মেইন ম্যেনু

ভ্রমণ দেবে ব্যক্তিত্বের পরিপূর্ণতা

মার্কিন পর্যটক পল থিরক্স বলেছেন, আপনি দীর্ঘ দিনের জন্যে কোথাও থেকে ঘুরে আসলে সম্পূর্ণ ভিন্ন এক মানুষ হয়ে ফিরে আসবেন। ধীরে ধীরে পর্যটনের বিষয়টি অবসর কাটানোর বিলাসী উপায়ে পরিণত হচ্ছে। আর ঘুরে-বেড়ানোর মূল আবেদন তো সব সময় রয়েছেই। মানুষ নতুন কিছু দেখতে ও শিখতে চায়।

ভ্রমণ শেষে মানুষ আগের চেয়ে কিছুটা বেশি অভিজ্ঞ ও জ্ঞানী হয়ে ফিরে আসে। পৃথিবী ও মানুষ সম্পর্কে ধারণা আরো বিস্তৃত হয়। স্বাভাবিকভাবেই মনের হীনমন্যতা দূর হয় এবং জীবনটাকে আরো অর্থপূর্ণ ও উপভোগ্য মনে হয়। সূক্ষ্ম চিন্তা-ভাবনার দ্বারগুলো উন্মোচিত হয়।

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে বহু কাল ধরে কোনো ভুল ধারণা প্রচলিত সত্য হয়ে বেঁচে থাকে। আপনিও হয়তো এমন কিছু ভুল তথ্য সেই শিশুকাল থেকেই বয়ে বেড়াচ্ছেন। একমাত্র ভ্রমণের মাধ্যমে যাবতীয় ভুল ধারণা দূর হবে। আসল সত্যগুলো উপলব্ধিতে চলে আসবে।

এসব শিক্ষা পেয়েছেন পর্যটক ল্যান্স রিচার্ডসন। মাত্র ১৯ বছর বয়স থেকে ভ্রমণ শুরু করেন তিনি। বহু দেশের অদ্ভুত সুন্দর এবং অনাকাঙ্ক্ষিত পরিবেশ এবং মানুষ দেখেছেন তিনি। জার্মানের অসউইৎজ-এ ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছেন। ম্যাক্সিকোর ভয়ংকর খুনে শহর সিউদাদ জুয়ারেজ পাড়ি দিয়েছেন।

বহু ভুল ধারণা দূর হয়েছে তার। ওসামা বিন লাদেন এবং ৯/১১ ঘটনা কেন্দ্র করে তিনি ভাবতেন, ‘ইসলাম হিংস্র ধর্ম’। তার এ ধারণা ভেঙেছে ভ্রমণের কারণে। বলেন, এটা তারাই মনে করতে পারেন যারা ঘুরে দেখেননি। আলখেল্লা পরে ওমানের মুসলমানদের সঙ্গে সময় কাটিয়েছেন। সেখানে দেখেছেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম।

অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস-এ এক নারী গল্প বলছিলেন ল্যান্সকে। শ্রীলঙ্কান তামিল টাইগার গেরিলারা ভারতীয় সমুদ্রে অস্ট্রেলিয়ান নেভির সঙ্গে বহু ঝামেলা করেছে। কিন্তু বহু অস্ট্রেলিয়ান পর্যটক শ্রীলঙ্কা ভ্রমণ করেছেন। কিন্তু কোনো গেরিলা তাদের বিন্দুমাত্র ঝামেলা করেনি।

ঐতিহাসিক শহর বা এলাকার পথ ধরে হাঁটলে ইতিহাসকে চোখের সামনে দেখতে পাবেন আপনি। রোমের পথ দিয়ে যখন ল্যান্স হাঁটছিলেন, প্রাচীন রোমের পরিবেশটা উপলব্ধি করছিলেন। আমাদের মনে যাবতীয় ভুল ধারণার উৎসটাকে চিনিয়ে দেয় ভ্রমণের অভিজ্ঞতা। আপনার দৃষ্টিভঙ্গি তৈরি করে দেবে ভ্রমণ।

বহু সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যের পূণ্যভূমির দেখা পেতে গ্রিস, ইতালি, ব্রিটেন এবং ভিয়েতনামে ঘুরেছেন ল্যান্স। এসব স্থানে ভ্রমণের অভিজ্ঞতা তাকে মূল সম্পর্কে টলটলে ধারণা দিয়েছে।

ভ্রমণকে যদি আত্মোন্নয়নের উপায় হিসেবে গ্রহণ করেন, তাহলে খাওয়া, প্রার্থনা, সম্পর্ক ইত্যাদির সমন্বয়ে আপনি অন্তিম সত্য উপলব্ধি করতে পারবেন। তাই শুধু নিজের দেশে নয়, বাইরের দেশেও ভ্রমণ করতে হবে।

বর্তমানে ভ্রমণ শুধু অর্থের খরচ নয়, বরং অর্থ উপার্জনের পথ খুলে দিয়েছে। এর মাধ্যমে একঘেয়ে জীবন থেকে এক লাফে এক স্বপ্নীল জগতে চলে যেতে পারবেন।

কবি জন ডোনে লিখেছিলেন, কোনো মানুষই গোটা একটা দ্বীপ নয়। বরং প্রত্যেক মানুষ এই দ্বীপের এক একটি টুকরো অংশ। এই সত্য একমাত্র পর্যটকরাই উপলব্ধি করতে পারেন। সূত্র : ট্রাভেল