মেইন ম্যেনু

ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা উপভোগ করছেন পর্যটকরা!

ভাইরাল হয়ে যাওয়া এই ছবিগুলো দেখলে ছোটবেলার কুমির-ডাঙা খেলার কথা মনে পড়ে যাবে৷ পানির মধ্যে একসঙ্গে কিলবিল করছে প্রায় ২০-৩০টা কুমির৷ আর তাদের মাঝখানে খানিকটা উঁচুতে ছোট্ট ডাঙায় দাঁড়িয়ে পর্যটকরা৷ না, জোর করে বা বিপদে পড়ে নয়৷ বন্য সরীসৃপদের কাণ্ডকারখানা কাছ থেকে উপভোগ করতেই জমায়েত হয়েছেন এই চীনা পর্যটকরা৷ থাইল্যান্ডের চোনবুরিতে এলিফ্যান্ট কিংডমে কুমিরের চাষ করা হয়৷ সেখানেই পর্যটকদের জন্য কুমীর দেখার বিশেষ ব্যবস্থা রয়েছে৷ কী এই ব্যবস্থা? পানির মধ্যে একটি ছোট্ট লোহার গ্রিলে ঘেরা জায়গা৷

খাঁচাও বলা যেতে পারে৷ যেখানে একসঙ্গে ১০-১৫ জন পর্যটকরা একসঙ্গে দাঁড়িয়ে কুমির দেখতে পারেন৷ শুধু চোখের দেখাই নয়, বঁড়শিতে মাংসের টুকরো গেঁথে কুমিরকে খাওয়াতেও পারবেন তাঁরা৷ মাংসের টুকরোর গন্ধে পর্যটকদের অনেকটাই কাছাকাছি পৌঁছে যায় কুমিরের দল৷ এমন ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা চেটেপুটে উপভোগ করছেন পর্যটকরাও৷

এক ট্যাক্সি চালক এই দৃশ্যের ছবি তুলে সোশ্যাল সাইটে পোস্ট করেন৷ কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তা ভাইরাল হয়ে যায়৷ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ৷ এলিফ্যান্ট কিংডম কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে, পর্যটকদের নিরাপত্তায় কোনো ঘাটতি রাখা হয় না৷ তবে বিষয়টি কতটা সুরক্ষিত, তা খতিয়ে দেখবে পুলিশ৷ তার জন্য আগামী ৯০ দিন পর্যটকদের জন্য এই জায়গাটি বন্ধ রাখা হবে৷