মেইন ম্যেনু

ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ড সিরিজ

‘ভয়াবহ’ বোলার সংকটে পড়তে যাচ্ছে বাংলাদেশ

মানসম্পন্ন বোলারের অভাব জাতীয় দলের দীর্ঘ দিনের সমস্যা। তবে গত বছরের মাঝামাঝিতে মোস্তাফিজের অভিষেকের পর সেই অভাব অনেকটাই কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ। মোস্তাফিজের পাশাপাশি পেসার তাসকিন আহমেদ ও স্পিনার আরাফাত সানির ভালো পারফর্ম-জাতীয় দলের বোলিং আক্রমণকে মোটামুটি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যায়।

সুসময় বুঝি দীর্ঘ হয়না।সামনের দিনগুলোতে আবার খুব বেশি বোলার সংকটে পড়তে যাচ্ছে বাংলাদেশ।জাতীয় দলের সামনে দুটি গুরত্বপূর্ণ সিরিজ।অক্টোবরে নিজেদের মাটিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হোম সিরিজ,আর ডিসেম্বর পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে নিউজিল্যান্ড সফরে যাবে টাইগাররা।

এই দুই সিরিজে বাংলাদেশকে নামতে হবে দলের তিন সেরা বোলারকে ছাড়াই! মোস্তাফিজের ব্যাপারটা সবার জানা।তার কাঁধের অস্ত্রোপচার লাগবে।এই ধরনের অস্ত্রোপচার করা হলে সাধারণত ৬ থেকে ৯ মাস মাঠের বাইরে থাকতে হয়।তাই এই দুই সিরিজে কাটার বয়কে যে পাওয়া যাবে না, সেটা নিশ্চিত।

আগস্টের শেষ দিকে বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষা দিবেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে সাময়িক নিষিদ্ধ দুই বোলার তাসকিন আহমেদ ও আরাফাত সানি।পরীক্ষায় পাশ করার সম্ভবনা রয়েছে তাসকিন আহমেদের।কিন্তু বোলিং অ্যাকশন সুধরানোর পর সাধারণত আগের ধারে থাকতে পারেন না বোলাররা।ক্রিকেট ইতিহাসে এই নজিরই সবচেয়ে বেশি।

তাসকিনের ফেরার সম্ভাবনা থাকলেও স্পিনার আরাফাত সানি বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষায় পাশ করবেন না বলেই মনে করা হচ্ছে। তার বোলিং অ্যাকশনে বড় ধরনের ক্রুটি রয়েছে। তার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট শেষ দেখছেন অনেকে।

গত এক-দেড় বছরে মোস্তাফিজ, তাসকিন ও আরাফাত সানির উপরই দলের বোলিং আক্রমণের মূল দায়িত্ব ছিল। কিন্তু এক সঙ্গে এ তিন জনের অনুপস্থিতি বাংলাদেশকে অনেকটাই বেকায়দায় ফেলে দেবে বলে মনে করা হচ্ছে।

মাশরাফি টেস্ট খেলেন না। একই অবস্থা রুবেল হোসেনেরও। আল আমিন ও মোহাম্মদ শহীদরা কতোটুকু কী দায়িত্ব পালন করতে পারবেন, সেটা বড় প্রশ্ন। কামরুল ইসলাম রাব্বি সদ্য শেষ হওয়া ঢাকা লিগে বেশ উইকেট নিলেও ওভার প্রতি রান দেওয়ার ক্ষেত্রে তিনি মোটেও কৃপন ছিলেন না। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার যোগ্যতা এই মুহূর্তে কতোটুকু সেটাও প্রশ্ন।

স্পিন বিভাগ তো আরো বেশি নড়বড়ে।জুবায়ের হোসেন লিখন ও তাইজুল ইসলামদের জাতীয় দলের অভিজ্ঞতা মোটেও সুখের নয়। সব মিলিয়ে নড়বড়ে বোলিং লাইন নিয়েই সামনের দুটি সিরিজ খেলতে হচ্ছে টাইগাররা। মোস্তাফিজদের অভাব বড্ড বেশি টের পেতে যাচ্ছে বাংলাদেশ।