মেইন ম্যেনু

মওদুদের বাড়ির মালামাল রাজউকের ট্রাকে

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমেদ গুলশানের যে বাড়িতে থাকতেন সেটির মালামাল ট্রাকে ওঠানো হচ্ছে। তবে মালামাল নিয়ে কোথায় যাবেন, সে বিষয়ে মওদুদ সাংবাদিকদেরকে কিছু বলেননি।

বিকালে বাড়ি থেকে মওদুদ আহমেদের ব্যবহৃত জিনিসপত্র, ড্রয়ার, চেয়ারসহ বাসার আসবাবপত্র থেকে শুরু করে সব মালামালই একটি ট্রাকে ওঠাতে দেখা যায়।

এর আগে বাড়িটির গ্যাস, বিদ্যুৎ ও পানির লাইন কেটে দেয়া হয়।

অভিযান চলার আগেই বাড়িটিকে ঘিরে কয়েক প্লাটুন পুলিশ, দুটি জল কামান, একটি রায়ট কার ও কভার্ড ভ্যান অবস্থান অবস্থান নেয় বাড়িটির সামনে। তবে কোনো ধরনের গোলযোগ হয়নি সেখানে।

গুলশান-২ এর ১৫৯ নম্বর প্লটে এক বিঘা ১৩ কাঠার বাড়িতে মওদুদ তিন দশক ধরে বসবাস করে আসছেন দুদকের রায়ের পর উচ্চ আদালত জানায়, বাড়িটি তিনি অবৈধভাবে দখল করেছেন। ৪ জুন উচ্চ আদালতের রায়ের তিন দিনের মধ্যে বুধবার দুপুরে বাড়িটিতে অভিযানে যায় রাজউকের দল।

বাড়ি উচ্ছেদের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন মওদুদ আহমেদ। তিনি বলেন, ‘আমি নিরুপায়। আদালতের রায় আমার পক্ষেই ছিল। আমাকে কোনো কিছু না বলেই বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করা হচ্ছে। কোনো নোটিশও করা হয়নি। এটা আইন সম্মত কোনো পদ্ধতি হতে পারে না।

রাজউকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অলিউর রহমান বলেন, ‘উচ্চ আদালতের রায় বাস্তবায়ন করতে আমরা এখানে এসেছি। আদালত বাড়িটি রাজউককে বুঝে নিতে বলেছে। সেটি আমরা বাস্তবায়ন করছি।’

এক প্রশ্নের জবাবে অলিউর রহমান বলেন, ‘বাড়ির মালামাল আমরা ট্রাকে ভরছি। জনাব মওদুদ আহমেদ যেখানে নিতে চাইবেন সেখানে আমরা এসব পাঠিয়ে দেব।’






মন্তব্য চালু নেই