মেইন ম্যেনু

মঙ্গোলিয়া যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

১১তম এশিয়া-ইউরোপ শীর্ষ সম্মেলনে (আসেম) যোগ দিতে বৃহস্পতিবার সকালে মঙ্গোলিয়ার উদ্দেশে ঢাকা ছাড়বেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ১৫-১৬ জুলাই উলানবাটোরে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

সকাল ১০টা ২৫ মিনিটে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ভিভিআইপি বিমানটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছাড়বে। স্থানীয় সময় বিকাল ৬টা ৫০ মিনিটে বিমানটি চেংগিস খান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করার কথা।

মঙ্গোলিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ফজলুল করিম এবং দেশটির প্রেসিডেন্টের চিফ অব স্টাফ ও অ্যাম্বাসাডর অ্যাট লার্জ পি সাগান বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানাবেন। আগামীকাল শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী শীর্ষ সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। তিনি সম্মেলনের প্রথম ও দ্বিতীয় পূর্ণ অধিবেশনে অংশ নেবেন এবং আসেম অংশীদারত্ব ও যোগাযোগ বিষয়ে বক্তব্য দেবেন।

শুক্রবার সুইস প্রেসিডেন্ট জন স্কনেইদার, রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদেভ, জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে, জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল ও ইতালির পররাষ্ট্রমন্ত্রী পাওলো জেন্তিলোনির সঙ্গে বৈঠক করবেন শেখ হাসিনা। এছাড়া মঙ্গোলিয়ার প্রেসিডেন্টের আমন্ত্রণে এক ভোজসভায়ও অংশ নেবেন।

প্রধানমন্ত্রী শনিবার মিয়ানমারের প্রেসিডেন্ট থিন কিয়াও, ভারতের উপরাষ্ট্রপতি হামিদ আনসারি, ইউরোপীয় কাউন্সিলের সভাপতি ডোনাল্ড টাস্ক ও ইউরোপীয় কমিশনের সভাপতি জেন ক্লাউড জুনকারের সঙ্গে বৈঠক করবেন।

আসেম হচ্ছে এশিয়া ও ইউরোপের ৫১টি দেশ ও দুটি আঞ্চলিক সংস্থার একটি ফোরাম। আরও বেশি ভারসাম্যপূর্ণ রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক বৈশ্বিক শৃঙ্খলা অর্জনের লক্ষ্যে ইউরোপ ও এশিয়ার মধ্যে প্রয়োজনীয় সব পর্যায়ে সম্পর্ক গভীর করতে এটি গড়ে তোলা হয়েছে।