মেইন ম্যেনু

মজুরি বাড়ানোর আশ্বাসে নৌ ধর্মঘট প্রত্যাহার

বেতন-ভাতা বৃদ্ধিসহ ১৫ দফা দাবিতে ডাকা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট মালিকপক্ষের মজুরি বাড়ানোর আশ্বাসে পাঁচ দিন পর প্রত্যাহার করেছেন নৌ শ্রমিকরা। রোববার সকাল থেকে সকল ধরনের নৌ-যান চলাচল করবে।

শনিবার রাতে রাজধানীর শ্রম ভবনে সরকারের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের নেতাদের বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত আসে। সভায় শ্রম প্রতিমন্ত্রী ও সচিব, শ্রম পরিদফতরের পরিচালক যুগ্ম সচিব এসএম আশরাফুজ্জামানসহ সরকারের ঊর্ধ্বতনরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় উপস্থিত বাংলাদেশ জাহাজী শ্রমিক ফেডারেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক সবুজ শিকদার জানান, জাতীয় শ্রমিকলীগ ও বাংলাদেশ জাহাজী শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি শুক্কুর মাহমুদের একান্ত প্রচেষ্টায় মালিকপক্ষ শ্রমিকদের দাবি মেনে নিতে সম্মত হন।

তিনি আরো জানান, বুধবার থেকে বাল্কহেড, অয়েল ট্যাংকার ও সার্ভিস জাহাজের দাবি মেনে নেওয়ায় বুধবার থেকে এগুলো নদী পথে চলাচল করছে।

উল্লেখ্য, সর্বনিম্ন মজুরি ১০ হাজার টাকা প্রদানসহ ১৫ দফা দাবিতে সোমবার (২২ আগস্ট) দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি শুরু করেছিলেন নৌযান শ্রমিকেরা। আর এতে কার্যত অচল হয়ে পড়ে সারা দেশের নৌ-যোগাযোগ।

এর আগে চলতি বছরের এপ্রিলেও ১৫ দফা দাবিতে ধর্মঘট ডেকেছিল নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন ও বাংলাদেশ জাহাজী শ্রমিক ফেডারেশন। এর পাঁচ দিন পর সচিবালয়ে নৌমন্ত্রী শাজাহান খানের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক শেষে ধর্মঘট কর্মসূচি স্থগিতের ঘোষণা আসে শ্রমিকদের তরফ থেকে। এরপর আবার ধর্মঘট শুরু করেন নৌযান মালিকরা। ওই দুই দফা ধর্মঘটে প্রায় ১১ দিন ব্যাহত হয়েছিল বাংলাদেশের নৌ-যোগাযোগ ব্যবস্থা।