মেইন ম্যেনু

মডেল গ্রেপ্তারঃ প্রোডাকশন হাউসের আড়ালে চলছে ভয়াবহ দেহ ব্যবসা

নামে প্রোডাকশন হাউস, কিন্তু ভিতরের খবর খুব ভয়াবহ! সেখানে অভিনয় করতে ইচ্ছুক এমন মেয়েদের ভুলিয়ে ভালিয়ে এবং নানা প্রলোভন দেখিয়ে তাদের দিয়ে করানো হয় দেহব্যবসা! ঘটনা ভারতের মুম্বাইয়ের।

ভারতের পশ্চিম মুম্বাইয়ের ভারসোভা এলাকায় গোপন সূত্রে হানা দিয়ে এই বড়সড় ‘মধুচক্রের’ আসর ফাঁস করে মুম্বাই পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে এক উঠতি মডেলকে গ্রেপ্তার করে তারা। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, সেই এই ব্যবসা চালাত। যদিও তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রোডাকশন হাউসের আড়ালে রমরমিয়ে এই দেহব্যবসা চলত। গোপন সূত্রে খবর পেয়েই সেখানে হানা দেয় পুলিশ। পুলিশ জানতে পেরেছে, উঠতি মডেলদের বলিউডে কাজ পাইয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখাত ধৃত ওই মডেল। পরে তাদের দিয়ে দেহব্যবসার কাজে নামিয়ে দেওয়া হতো। বদলে কমিশন পেত ওই মডেল। এখানেই শেষ নয়, পুলিশ জানতে পেরেছে, কাস্টমারদের কাছে মডেলদের পাঠানোর আগে তাদের মোবাইলে আগে পাঠানো হতো মডেলদের ন্যুড ছবি। আর তা পছন্দ হলেই কেল্লা ফতে। রাত হলেই ওই সমস্ত কাস্টমারদের কাছে পৌঁছে যেতেন পছন্দ হওয়া মডেলেরা।

গোপন সূত্রে এই দেহব্যবসায়ী চক্রের খবর পান পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা। তারপর গোপনে হানা দেয় ভারসোভা এলাকায়। সেখান থেকে ওই মডেলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে একটি ডায়েরি। তাতে অনেক উঠতি মডেলের নাম ও ছবি রয়েছে। ঘটনায় আরও কোনো বড় যোগাযোগ রয়েছে কিনা সেটা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।