মেইন ম্যেনু

মডেল সাবিরার ময়নাতদন্ত সম্পন্ন, চলছে দাফনের প্রস্তুতি

সুইসাইড নোট লিখে নিজ বাসায় ফ্যানের সিলিংয়ের সাথে ঝুলে আত্নহত্যা করা মডেল সাবিরা হোসাইনের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। এখন চলছে তার লাশ দাফনের প্রস্তুতি।

মঙ্গলবার বিকেলে ওই মডেলের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) ফরেনসিক অ্যান্ড মেডিসিন বিভাগের প্রভাষক ডা. প্রদ্বীপ বিশ্বাস। এসময় তিনি বলেন, ‘এটা স্লিং টাচ হ্যাংগিং ডেথ (সিলিং এ ঝুলে আত্নহত্যা)। এছাড়া অন্য কোন ধরণের আলামত পাওয়া যায়নি।’

ময়নাতদন্ত শেষে নিহত মডেলের মামা হুমায়ুন কবীর তার মৃতদেহ ঢামেক থেকে বুঝে নেন। এসময় তিনি বলেন, ‘সাবিরা মিরপুরের রূপনগরে সাবলেট থাকতেন। শুনেছি রাতে ফেসবুকে নির্ঝর নামের তার বন্ধুর সাথে প্রচন্ড ঝগড়া হয়। এর এক পর্যায়ে সে সিলিং এ ঝুলে আত্নহত্যা করেন।’

এ বিষয়ে কোন মামলা করবেন কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সাবিরার দাফন শেষ করে এ বিষয়ে সীদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’ কোথায় দাফন করবেন, জানতে চাইলে মামা হুমায়ুন কবীর বলেন, ‘এখন সে বিষয়ে কোন সীদ্ধান্ত হয়নি। লাশ প্রথমে মিরপুরে নিয়ে যাব। তারপর আত্নীয় স্বজনদের সাথে কথা বলে দাফনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

মঙ্গলবার (২৪মে) ভোর ৫টার দিকে রাজধানীর মিরপুরে রূপনগরের বাসায় ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। রূপনগর থানার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) জোহরা খাতুন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এর আগে সোমবার দিবাগত রাতে ভিডিও বার্তা যুক্ত করে ফেসবুক স্ট্যাটাসে সাবিরা লেখেন, ‘আমি তোমাকে (নির্ঝর) দোষ দিচ্ছি না। এটা তোমার ছোট ভাইকে বলা। সে আমাকে যা ইচ্ছে বলেছে। আর বেস্ট পার্ট হল, সে আমাকে বাসা থেকে বের করে দিয়েছে। আর আমার প্রশ্ন হল, তোমার কি একটুও ফিল হয়নি?’

তিনি আরো লিখেছেন, ‘আমাকে ব্যবহার করবে, সেক্স করবে, আর আমি সরে যাবো। এটাতো হতে পারে না। বিয়ের কথা বললে তোমার পরিবার অসুস্থ হয়ে যায় আর সেক্সের কথা বললে সব ঠিকঠাক।’

সবশেষে নির্ঝরকে ট্যাগ করে তিনি লেখেন, ‘আমার মৃত্যুর জন্য সে (নির্ঝর) দায়ী। যদি আমি মারা যাই, তাহলে এর দায় তার।’