মেইন ম্যেনু

মধ্যদুপুরের ক্ষুধা দূর করুন সহজ ৫টি উপায়ে

মাঝ সকালে কম বেশি সবার ক্ষুধা লেগে থাকে। একই সমস্যা রাতে খাবার খাওয়ার আগে হয়ে থাকে। আপনি যদি চাকরিজীবী হন, তবে এই সমস্যাটায় আপনাকে অব্যশই ভুগতে হবে। স্বাস্থ্য সচেতন যেকোন মানুষই ভারী কোন খাবার খেতে চায় না, এই সময়টাতে, আবার ক্ষুধা নিয়ে কাজও করতে পারে না। এই সমস্যার কিছু স্বাস্থ্যকর সমাধান রয়েছে। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক সমাধানগুলো।
১। হেঁটে আসুন

কম্পিউটারের সামনে অনেকক্ষণ বসে থেকে আপনার এনার্জি অনেকখানি কমে যায়। একনাগাড়ে কাজ না করে কিছুক্ষণ হেঁটে আসুন। সবচেয়ে ভাল হয় অফিসের বাইরে থেকে কিছুক্ষণ হেঁটে আসুন। এর সাথে খেয়ে নিতে পারেন এক কাপ কফি আর একটি বিস্কুট। দেখবেন ক্ষুধা কমে যাওয়ার সাথে সাথে কাজেও মনোযোগ চলে আসছে।
২। গল্প করুন

মাঝে মাঝে কিছুক্ষণের গল্প হতে পারে আপনার ক্ষুধা নিবারণের হাতিয়ার। সহকর্মীর সাথে কিছুক্ষণ গল্প করুন। দেখবেন ক্ষুধা অনেকখানি কমে গেছে। সম্ভব হলে প্রিয় বন্ধুটার সাথে কিছুক্ষণ ফোনে কথা বলে নিন।
৩। ঘড়ি দেখুন

মনস্তত্ববিদ Anding এর মতে “আপনি যদি ৫ ঘন্টা কোন খাবার না খেয়ে থাকেন, তবে আপনার ব্লাড সুগার নেমে যাবে এবং আপনার ক্ষুধা লাগা শুরু হবে”। আপনি যদি ক্ষুধা রুখতে চান, তবে ৫ ঘন্টার আগে কিছু খাবার খান। তা হতে পারে ছোট কোন ফল অথবা লো ক্যালরিযুক্ত খাবার।
৪। প্রচুর পানি পান করুন

পানি দিয়ে ক্ষুধা নিবারণের চেষ্টা করুন। ডিহাইড্রেশন অনেক সময় চর্বিযুক্ত খাবার খাওয়ার প্রতি আগ্রহ তৈরি করে দিয়ে থাকে। ক্ষুধার সময় পানি পান করুন। একটি পানির বোতল অফিসের ডেস্কে রাখুন। ক্ষুধা লাগলে পানি পান করুন। পানি আপনার ক্ষুধা নষ্ট করে দিবে।
৫। চুইংগাম চিবিয়ে নিন

চুইংগাম আপনার ওজন কমাতে সাহায্য করে। এক গবেষণায় দেখা গেছে চুইংগাম মিষ্টি জাতীয় খাবার খাওয়া থেকে বিরত রাখে। ক্ষুধা লাগলে একটি চুইংগাম চিবিয়ে নিতে পারেন। এটি আপনার ক্ষুধা নিবারণ করবে তার সাথে ওজন হ্রাস করতে সাহায্য করবে। আপনি যদি ডায়েটে থাকেন তবে চিনি ছাড়া চুইংগাম খেতে পারেন।

হালকা কোন স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে পারেন। তা হতে পারে একটি আপেল, ফল কিংবা কোন বাদাম। এই খাবারগুলো আপনার ক্ষুধা দূর করে আপনাকে সুস্থ রাখবে।