মেইন ম্যেনু

মনিবের পরিবার বাঁচাতে ৪ গোখরার সঙ্গে লড়াইয়ে জীবন দিল কুকুরটি

সব সময়ই দারুণ প্রভুভক্ত হয় কুকুর। মানুষের বন্ধু বলেও পরিচিতি আছে এই প্রাণিটির। আর সেই বন্ধুত্বের প্রমাণ দিতে গিয়ে নিজের জীবন হারাতে হলো একটি কুকুরকে। সাধারণ কোনো ঘটনায় নয়, চারটি বিষধর গোখরা সাপের সঙ্গে লড়াই করে নিজের মনিবের পরিবারকে বাঁচিয়েছে সে।

গত সোমবার এই ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের ভুবনেশ্বর থেকে প্রায় চারশো কিলোমিটার দূরে গজপতি জেলার সেবেকাপুর গ্রামে। চার চারটি বিষধর গোখরা সাপ তার মালিকের বাড়িতে ঢোকার চেষ্টা করছিল। কিন্তু নিজের প্রাণের বিনিময়ে সেই চেষ্টা আটকাল একটি ডোবারম্যান প্রজাতির ওই কুকুরটি।

কয়েকমাস আগেই নিজের বাড়িতে পোষার জন্য একটি ডোবারম্যান কুকুর কিনেছিলেন স্থানীয় বাসিন্দা দিবাকর রায়তা। সোমবার রাতে দিবাকর এবং তার পরিবারের আট সদস্য ঘুমোচ্ছিলেন। এমন সময় চারটি গোখরা সাপ একসঙ্গে দিবাকরের বাড়িতে ঢোকার চেষ্টা করে।

রাতে বাড়ি পাহারা দিচ্ছিল ওই ডোবারম্যান কুকুরটি। প্রভু এবং তার পরিবারের বিপদ বুঝতে পেরে সাপগুলোর উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে সে। সাপগুলোর সঙ্গে কুকুরটির ভয়ঙ্কর লড়াই শুরু হয়। বারবার সাপের বিষাক্ত কামড় খেয়েও পিছু হটেনি ডোবারম্যানটি। এক ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে লড়াই করার পরে চারটি সাপকেই মারতে সক্ষম হয় সে।

কিন্তু লড়াইয়ে জিতলেও কিছুক্ষণের মধ্যেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে কুকুরটি। কারণ লড়াই চলার সময়ে বিষাক্ত সাপগুলি তাকে একাধিকবার ছোবল মারে। মাত্র কয়েকমাস আগে বাড়িতে নিয়ে আসা ডোবারম্যান যে এইভাবে নিজের প্রাণের বিনিময়ে তাদের প্রাণ বাঁচাবে, তা যেন বিশ্বাসই করতে পারছেন না দিবাকর।

তিনি জানান, আজীবন ওই ডোবারম্যানের আত্মত্যাগের কথা মনে রাখবেন তিনি। কুকুরটির সাহসিকতরা কথা ছড়িয়ে পড়ার পরেই আশেপাশের গ্রাম থেকে বহু মানুষ তাকে দেখতে জড়ো হয়। অনেকে ফুল দিয়ে সাহসী ডোবারম্যানটিকে শেষ শ্রদ্ধা জানান।