মেইন ম্যেনু

মন্দিরের ভেতরে ঢুকে পড়ল কুমির, তারপর …

মন্দিরের ভেতরে ঢুকে পড়েছে আস্ত একটি কুমির। লম্বায় প্রায় ১২ ফুট। নিজের বিশাল দেহ নিয়ে মন্দিরের ভেতরে অবাধে বিচরণ করছে সে। দেখেই চমকে ওঠেন কর্নাটকের বাগালকোট গ্রামের পুরোহিত।

মন্দিরে সকলের প্রবেশের অনুমতি রয়েছে বটে, কিন্তু তা বলে এমন ভয়ানক ভক্ত? প্রাণ বাঁচলে তবেই না সবকিছু বাঁচবে। তাই তড়িঘড়ি গ্রামের মানুষদের খবর দেন পুরোহিত। সবাই মিলে দড়ি দিয়ে তাকে বাঁধার চেষ্টা করেন। কিন্তু প্রথমে কিছুতেই বাগে আনা যাচ্ছিল না বিশাল প্রাণীটিকে। শেষে কোনওভাবে তাকে আয়ত্তে আনা যায়। অতি কষ্টে তুলে নিয়ে গিয়ে নিরাপদ স্থানে জঙ্গলের ভিতর ছেড়ে দেওয়া হয়।

বাগালকোট গ্রামে কুমির আসা অবশ্য কোনও নতুন ঘটনা নয়। কিন্তু ইদানীং কুমিরের উৎপাত ভীষণই বেড়ে গিয়েছে। এর জন্য অবশ্য প্রাণীগুলির কোনও দোষ নেই। সবই প্রকৃতির রুদ্ররূপের ফলাফল। আসলে চলতি মরশুমে বৃষ্টির হার খুবই কম। তার উপরে তীব্র দাবদাহে এলাকার পুকুর, নদী-নালা সবই প্রায় শুকিয়ে কাঠ। তাই গরমের জ্বালা সইতে না পেরে বারবার লোকালয়ে চলে আসছে অবোধ প্রাণীগুলি।

এই কুমিরটিকে নিরাপদ স্থানে পাঠাতে পেরে খুশি তাঁরা। তবে কুমিরের এই বারবার লোকালয়ে আসা নিয়েও বেশ চিন্তিুত সকলে। স্থানীয় প্রশাসনকে পুরো বিষয়টি জানানো হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই