মেইন ম্যেনু

মহাকাশ থেকে ভেসে আসা সংকেত! উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য…

জ্যোতির্বিজ্ঞানী সেথ সোটাক একটি ব্লগপোস্টে জানিয়েছিলেন, সংকেতটির ধরন রহস্যজনক। কে বা কারা এই সংকেত পাঠিয়েছিল, সে বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারেননি কেউই। তবে সেই ঘটনা নিয়ে এবার জানা গেল চাঞ্চল্যকর তথ্য।

কিছুদিন আগেই যুক্তরাষ্ট্রের গবেষণা সংস্থা ‘এস ই টি আই ইনস্টিটিউট’-এর রেডিওয় মহাকাশ থেকে ধরা পড়েছিল এক অস্বাভাবিক সংকেত। জ্যোতির্বিজ্ঞানী সেথ সোটাক একটি ব্লগপোস্টে জানিয়েছিলেন, সংকেতটির ধরন রহস্যজনক। কে বা কারা এই সংকেত পাঠিয়েছিল, সে বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারেননি কেউই। তবে সোটাক অনুমান করেছিলেন, এই সংকেত হয়তে কোনও আলাদা সৌরজগৎ থেকে আসতে পারে। সেটি হয়তো আমাদের থেকে ৯৪ অলোকবর্ষ দূরে অবস্থান করছে। সম্প্রতি সেই ঘটনা নিয়ে এবার জানা গেল চাঞ্চল্যকর তথ্য।

বিষয়টি নিয়ে যাঁরা অনুসন্ধান করছিলেন তাঁরা সম্প্রতি জানিয়েছেন, ওই সংকেতের সূত্রপাত কোনও অন্য জগৎ থেকে হয়নি। মনে করা হচ্ছে, এটি মহাকাশেরই কোনও স্যাটেলাইট থেকে এসেছে। সম্ভবত কোনও রাশিয়ান মিলিটারি স্যাটেলাইট থেকেই রেডিওয় ধরা পড়েছে সংকেতটি। এই তথ্য জানিয়েছেন, রাশিয়ান মহাকাশ-বিজ্ঞানীরাই। ২০১৫ সালেও রাশিয়ায় এই একই ধরনের সংকেত ধরা পড়েছিল বলে জানা গিয়েছে। দু’টি সিগন্যালের ধরনে মিল পাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা।

গবেষকরা আগেই জানিয়েছিলেন, ভিনগ্রহে কোনও প্রাণের অস্তিত্ব নিয়ে ভাবার সময় এখনও আসেনি। আর ওই সিগন্যাল যদি কোনও ভিনগ্রহ থেকে এসেই থাকত, তাদের প্রযুক্তি মানুষের থেকেও উন্নত বলে প্রমাণিত হত। তবে এখনও পর্যন্ত তেমন কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি। মহাবিশ্বে-মহাকাশে-মাহাকাল মাঝে মানব একাকীই থেকে গেল এ যাত্রা।