মেইন ম্যেনু

মহিলা জামায়াতের সভানেত্রীসহ ১০ নেতাকর্মী কারাগারে

জামায়াতে ইসলামীর ঢাকা মহানগরী মহিলা শাখার সভানেত্রীসহ ১০ নেতাকর্মীকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

তাদেরকে সোমবার আদালতে হাজির করে জিডি (সাধারণ ডায়েরি) তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত করাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শক ওয়াহিদুজ্জামান। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মো. তসরুজ্জামান এ আদেশ দেন।

তাদের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আব্দুর রাজ্জাক ও আশরাফুজ্জামান শাকিল জামিনের আবেদন করেন। তাদের আইনজীবী একদিন সময় চাইলে আদালত তাদের জামিন শুনানির জন্য মঙ্গলবার দিন ধার্য করেন।

মামলা তদন্তকারী আবেদনে উল্লেখ করেন, “রোববার রাজধানীর রমনা মডেল থানাধীন সেগুনবাগিচা ৩/১ নং বাসার ৫ম তলায় একটি কক্ষে সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র এবং ভবিষ্যতে সরকার পতনের জন্য বাংলাদেশ জামায়েতে ইসলামী এর আন্দোলনের রূপরেখা প্রণয়নের জন্য সমবেত হন। অভিযান পরিচালনার সময় আসামিদের ওই বাসায় একত্রে সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের শলা পরামর্শ করা অবস্থায় পাওয়া যায়। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে সবাই জামায়েতে ইসলামীর নেতাকর্মী বলে স্বীকার করেন। আসামিরা ধর্তব্য আপরাধের সঙ্গে জড়িত আছে সন্দেহে ৫৪ ধারায় গ্রেফতার করা হয়।”

আটকরা হলেন- আয়েশা সিদ্দিকী, কামরুন্নেচ্ছা, মোনা ইয়াসমিন, ফিরোজা হক, সামছুন্নাহার, শাহানা বেগম, জাকিয়া সরোয়ার, লুৎফা বেগম, রাজিয়া খানম ও আঁখি আক্তার।