মেইন ম্যেনু

আ'লীগ দলীয় প্রার্থী সর্বহারা ও হত্যা মালার আসামী আব্দুল হালিম

মাগুরার শ্রীপুরের স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী কাজে বাধার অভিযোগ

মাগুরা প্রতিনিধি: শ্রীপুরের গয়েশপুর ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থী ও তার সমর্থকরা স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের নির্বাচনী কার্যক্রমে নানা বাধার সৃস্টি করছে। এছাড়া সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে নির্বাচনী কর্মীকে ব্যাপক মারধরসহ নানা নির্যাতন করছে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে আজ শনিবার পাঠানো লিখিত অভিযোগে স্বতন্ত্র প্রার্থী স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা ইউছুফ আলী মন্ডল এসব অভিযোগ এনেছেন। অভিযোগে তিনি আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থীকে সর্বহারা দলের সদস্য ও হত্যা মামলার আসামী হিসাবে উল্লেখ করেছেন।
লিখিত অভিযোগে তিনি জানান, আওয়ামীলীগ প্রার্থী আব্দুল হালিম ও তার লোকজন ইউছুব আলী মন্ডলের সমর্থক গোলাম রসুল এরশাদ মোল্যাকে মারপিট করে হাত পা ভেঙ্গে দিয়েছে। এছাড়া ইউছুফ আলীর ছেলে এনামুল হকসহ আরো অনেকের ওপর হামলার চেষ্টাসহ নানা হুমকী দিয়ে আসছে। এমনকি মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করছে।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, আব্দুল হালিম ১৯৯৬ সালে নিষিদ্ধ ঘোষিত সর্বহারা পার্টির সদস্য ছিল। ওই সময় অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ও ভোট কেন্দ্র দখল করে এ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হয়েছেন। ইতিপূর্বে নির্বাচনে বিরোধিতা করার কারনে খায়বার আলী নামে এক আওয়ামীলীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা করে। যে মামলাটি জজ আদালতে বিচারধীন রয়েছে। এসব কারনে বর্তমান নির্বাচন নিয়ে তারা শংসয়ে ভুগছেন ও চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছে। ফলে নির্বাচন কমিশন যথাযথ ব্যবস্থা না নিলে সুষ্ঠ নির্বাচন সম্ভব হবেনা।
তবে ইউছুফ আলীর এসব অভিযোগকে অস্বীকার করে আব্দুল হালিম বলেন, ‘নির্বাচনে পরাজয় নিশ্চিত জেনে ইউছুফ আলী তার বিরুদ্ধে এসব অপপ্রচার চালাচ্ছেন।