মেইন ম্যেনু

মাগুরায় সন্ত্রাসী হামলায় নিহত নিরুর পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

মাগুরা প্রতিনিধি : হত্যা মামলার তদন্ত কার্যক্রম থেকে এক উধর্বতন পুলিশ কর্মকর্তার প্রত্যাহর দাবী করে বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলন করেছে নিতহ নিরুর পরিবার। শহরের আল এহসান ক্লিনিক চত্বরে নিহত মুন্সী এমদাদুল হক নিরুর স্ত্রী শ্রীপুরের কচুয়া গ্রামের আখি আক্তার এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন।

সংবাদ সম্মেলনে আখি আক্তার অভিযোগ করেন গত ১৮ মে ২০১৬ তারিখে তার স্বামী এমদাদুল হক নিরুকে একাই এলাকার কাষ্টমস কর্মকর্তা ইকবাল হোসেন তার ভাড়া করা সন্ত্রাস বাহিনী দিয়ে পূর্ব বিরোধ সুত্রে নির্মম ভাবে কুপিয়ে হত্যা করে। এ বিষয়ে সদর থানায় মামলা দায়ের হয়। মামলাটি প্রথম অবস্থার সি আই ডি কর্মকর্তা আমিরুল ইসলাম বিশ্বাসের তদন্তনাধীন ছিল ও সঠিকভাবেই তদন্ত কাজ অগ্রগামী ছিল। কিন্তু বাদী পরে কোন তদন্তে না থাকা অবস্থাতেই মামলাটি ইন্স্যু করে যশোরে কর্মরত সি আই ডি কর্মকর্তা সিনিয়র এস এস পি মোস্তাফা কামালের দায়িত্বে দেয়া হয়। এ সময় আমরা মামলার তদন্তে আমিনুল ইসলামের পুনর্বহাল দাবী করে সি আই ডি কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন জানাই। কিন্তু সি আই ডি কর্তৃপক্ষ সে আবেদন না মেনে যশোর অঞ্চলের বিশেষ পুলিশ সুপার শাহাজাহানের দায়িত্বে দেন।

মামলাটি সিনিয়র ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ মোস্তফা কামালের কাছে থাকা অবস্থায় হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আতাহার গ্রেফতার হয় ও সে তার স্বীকারোক্তিতে এক নম্বর আসামী ইকবাল হোসেনের জড়িত থাকার কথা জানায় এই স্বীকারোক্তিতে সন্ধে বাদী ইকবাল হোসেনকে গ্রেফতারের দাবী জানালে, সি আই ডি কর্মকর্তা সৈয়দ মোস্তফা কামাল তাদের জানান যে, এ বিষয়ে যশোর অঞ্চলের এসএস পি শামসুল আলমের আপত্তি আছে শুধু তাই নয় বর্তমান তদন্তকারী কর্মকর্তা শাহজাহান মিয়া শামসুল আলমের বিরুদ্ধে একই বক্তব্য দিয়েছে। একারণে মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্থানে তারা যশোর অঞ্চলের এস এস পি শামসুল আলমকে প্রত্যাহারের দাবী জানালেন তারা না হলে সুবিচার মামলার অপেক্ষা রয়েছে।