মেইন ম্যেনু

মাছির যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ? জেনে নিন মাছি তাড়ানোর সহজ উপায়

বর্ষাকাল মানেই মশা-মাছির উপদ্রব। ছোঁয়াচে রোগের জাঁকিয়ে বসার আদর্শ সময় বর্ষাকাল। তাই এই সময় দরকার অতিরিক্ত একটু সতর্কতা, অতিরিক্ত কিছুটা সাবধানতা। খাবার খোলা রাখলে, বা বাড়িতে নোংরা আবর্জনা জমলে, বা খোলা ড্রেনে মাছির উপদ্রব বাড়ে। মাছি থেকে নানা রকম রোগও ছড়ায়। তাই বাড়ি থেকে মাছি তাড়াতে অবশ্যই করুন এই কাজগুলো।

বেসিল গাছ: শক্তিশালী গন্ধতে মাছি থাকতে পারে না। যেমন- বেসিল গাছের গন্ধে মাছি চলে যায়। বাড়িতে মাছির উপদ্রব হলে তাই বেসিল গাছ লাগান। বেসিল একধরণের তুলসীর জাতীয় গাছ। পাশাপাশি ল্যাভেন্ডার, পুদিনা, তেজপাতার গন্ধেও মাছি কমে।

এসেনসিয়াল অয়েল: এসেনসিয়াল অয়েল বিশেষত ল্যাভেন্ডার এবং ইউক্যালিপ্টাস অয়েলের গন্ধ সহ্য করতে পারে না মাছি। বাড়ির চারপাশে এসেনসিয়াল অয়েল ছড়িয়ে রাখুন। ফল পাবেন হাতে-নাতে।

প্লাস্টিক ওয়াটার ব্যাগ: প্লাস্টিক ব্যাগে জল ভরে দরজায় জানলায় টাঙিয়ে রাখুন। জলের ব্যাগে আলো রিফ্লেক্ট করে। ফলে মাছি পথভ্রষ্ট হয়।

কর্পূর: কর্পূরের গন্ধ খুব উগ্র। কর্পূরের গন্ধে মাছি চলে যায়। বাড়ির যে কোনও কোণে এক টুকরো কর্পূর রেখে দেখুন মাছি চলে যাবে।

কমলালেবুর খোসা: কমলালেবুর খোসার গন্ধেও চলে যায় মাছি।

লবঙ্গ ও লেবু: যে কোনও সাইট্রাস ফলের মধ্যে লবঙ্গ গেঁথে রাখুন। গন্ধে চলে যাবে মাছি।

ভেনাস ফ্লাই ট্র্যাপ: ঘরে এই গাছ রাখতে পারেন। কোনও পরিশ্রম ছাড়াই মাছি চলে যাবে গাছের পেটে। এই পতঙ্গভুক গাছ রাখলে মাছির উপদ্রব নিয়ে নো টেনশন।

মধু: মধুকে ট্র্যাপ হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন অবলীলায়। জানলা বা দরজার বাইরে পাত্রে করে মধু রেখে দিন। মধুতে আকৃষ্ট হয়ে মাছি মধুতে আটকে যাবে।-আনন্দবাজার