মেইন ম্যেনু

মাটি থেকে ১০০০ ফুট উপরে তৈরী হলো ঝুলন্ত হোটেল: এ যেন শূন্যে বসবাস (ছবি সহ)

দুঃসাহসিক পর্যটনকে এক নতুন মাত্রা দিল পেরুর নাটুরা ভাইভ কোম্পানী। দেশটির আন্দিজ পর্বতের পাশে নাটুরা ভাইভের তৈরিকৃত ঝুলন্ত ঘুমানোর জায়গাটি অ্যাডভেঞ্চারপ্রিয় ভ্রমণকারীদের সব ধরনের উত্তেজনা যোগাবে। আর তার জন্য প্রত্যেক ভ্রমণকারীর প্রতি রাতে গুনতে হবে ৩শ’ মার্কিন ডলার।

কিন্তু আপনি যদি ভ্রমণ করতে চান তাহলে একটা খটকা আছে। ঘুমানোর ঐ খুপড়িটিতে যেতে হলে মাটি থেকে ১০০০ ফুট উপরে আরোহণ করতে হবে আপনাকে। খুপড়িটিতে ৬টি জানালা, ১টি বাথরুম এবং খাওয়ার জায়গা আছে।

পর্বত আরোহণ গাইড আরিও ফেরি ২০০৮ সালে নাটুরা ভাইভ প্রতিষ্ঠা করেন। পর্যটন কোম্পানীটি পর্বত আরোহণও পরিচালনা করে থাকে।

ছবিতে দেখুন হোটেলটির বিস্তারিত তথ্য।

image

ভিজিটররা প্রায় ১৪০০টি লোহার রিং অতিক্রম করে স্কাইলজটিতে পৌছান। আর হোটেলে ওঠার সময় তারা রক্ষা বেষ্টনীও পরিধান করে।

1

তাছাড়া অনেকে জিপ লাইনের মাধ্যমেও খাঁড়া পর্বত অতিক্রম করেন।

2

অতিথিরা সাবমেরিনের অনুরূপ ছাদে তৈরিকৃত দরজা দিয়ে খুপড়িতে প্রবেশ করেন।

3

১৯২ বর্গফুটের স্বচ্ছ কক্ষটিতে চারজন মানুষ থাকতে পারে। আর এর মধ্য থেকে পেরুর পবিত্র উপত্যকা দেখা যায়।

4

বাক্সগুলো এ্যারোস্পেস অ্যালুমিনিয়াম এবং পরিবেশ সহনশীল পলিকার্বোনেট দিয়ে তৈরি।

5

প্রত্যেকটি খুপড়িতে ৬টি জানালা এবং চারটি বায়ু চলাচলের নালী আছে।

6

তাছাড়া লজের উপরে আছে খাওয়ার জায়গা।

7

একটি অন্তরক দেয়ালের মাধ্যমে হোটেলের শোয়ার ঘর থেকে বাথরুমকে পৃথক করা হয়েছে। বাথরুমে একটি শুষ্ক টয়লেট ও পানি খাওয়ার জায়গা আছে।

8

খুপড়িটিতে চারটি বাতিসহ বই পড়ার জন্য একটি ঘরোয়া বাতি আছে। সব বাতি সোলার পাওয়ারে চলে।

9

অন্যরকম এই অভিজ্ঞতার স্বাদ নিতে হলে সর্বমোট ৩০০ মার্কিন ডলার খরচ হবে আপনার।

10

প্যাকেজটিতে পেরুর পবিত্র উপত্যকার দর্শনীয় দৃশ্যের সাথে ডিনার, সকালের খাবার ও পানীয় হিসেবে ওয়াইনের ব্যবস্থা আছে।