মেইন ম্যেনু

মাতৃগর্ভে গুলিবিদ্ধ সেই শিশুটির জন্মদিন আজ

মাতৃগর্ভে গুলিবিদ্ধ হওয়া সেই শিশু সুরাইয়ার প্রথম জন্মদিন আজ। কেক কেটে ও মিষ্টি বিতরণ করে দিনটি উদযাপন করছে সুরাইয়ার মা-বাবা। আনন্দের জোয়ারে ভাসছে গোটা পরিবার। কিন্তু মামলার অধিকাংশ আসামি জামিনে মুক্ত থাকায় শঙ্কা কাটেনি শিশুটির পরিবারের।

সুরাইয়ার মা মোছা. নাজমা পারভীন জানান, সুরাইয়ার জন্মবার্ষিকী উদযাপন করতে পারাটা তার জন্য ভাগ্যের ব্যাপার। নিজেই মহল্লায় কেক ও মিষ্টি বিতরণ করছেন। সুরাইয়ার জন্য নতুন জামা কাপড়ও তৈরি করিয়েছেন। বুলেট কন্যা নামে এখন আর কেউ সুরাইয়াকে ডাকে না।

সুরাইয়ার বাবা বাচ্চু ভূঁইয়া বলেন, মায়ের পেটে শিশু গুলিবিদ্ধ ও একজন খুনের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার ১৬ আসামির মধ্যে ১১ জন জামিনে মুক্ত হয়ে তাদেরকে নানাভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে। বাকি ৫ জনের মধ্যে আজিবর পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। ৩ জন জেল হাজতে এবং এ মামলার অন্যতম আসামি মুজিবর এখনও পালিয়ে বেড়াচ্ছে ফলে পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।

এ ব্যাপারে মাগুরার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সুদর্শন কুমার রায় জানান, বর্তমানে মামলাটি আদালতে প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। পরিবারটির নিরাপত্তার বিষয়টি চিন্তা করে ওই এলাকায় সাদা পোশাকের পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। জামিনে মুক্তি পাওয়া আসামিদের উপরও সার্বক্ষণিক নজরদারি রাখা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ২৩ জুলাই শহরের দোয়ারপাড়ে চাদাবাজী, মাদক ব্যবসা, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ক্ষমতাশীন দলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে গুলিবিনিময় হয়। এ সময় ৮ মাসের অন্তস্বত্ত্বা গৃহবধূ নাজমা বেগম পেটে গুলিবিদ্ধ হন। এ ঘটনায় মমিন ভূঁইয়া নামে একজন নিহন হন।

পরে নিহত মমিন ভূঁইয়ার ছেলে রুবেল ১৬ জনকে আসামি করে সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনা তখন সারাদেশে আলোড়ন সৃষ্টি করে। জাগো নিউজ