মেইন ম্যেনু

মাত্র ৩০ মিনিটে ঘরেই তৈরি করুন দারুণ সুস্বাদু ‘গোলাপজাম’ মিষ্টি

গোলাপজামের নাম শোনেন নি এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না। অত্যন্ত সুস্বাদু এই মিষ্টির ভক্ত প্রায় সকলেই। আজকে চলুন শিখে নেয়া যাক এই অসাধারণ মিষ্টিটির সবচাইতে সহজ রেসিপিটি। চিন্তা করবেন না, বেশী কিছুই লাগবে না। সামান্য কিছু উপকরণে গুঁড়ো দুধ দিয়েই তৈরি করে নিতে পারবেন খুবই সুস্বাদু এই মিষ্টিটি। এবং সময় লাগবে মাত্র ৩০ মিনিট। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক রেসিপিটি।

উপকরণ

– ১ কাপ চিনি
– ৩ টি এলাচ
– দেড় কাপ পানি
– ২ ফোঁটা লেবুর রস
– আধা কাপ গুঁড়ো দুধ
– ১ টেবিল চামচ ময়দা
– ১/৮ চা চামচ বেকিং সোডা
– ১ টেবিল চামচ ঘি
– ২-৩ টেবিল চামচ দুধ
– তেল বা ঘি ভাজার জন্য

পদ্ধতি

– পানিতে চিনি দিয়ে ফুটিয়ে নিন এবং মাঝারী পাতলা ধরণের শিরা তৈরি করে ফেলুন। এতে এলাচ ও লেবুর রস দিয়ে আরও কিছুক্ষণ জ্বাল দিয়ে শিরা আলাদা করে নামিয়ে রাখুন। ৮ মিনিটের মধ্যেই শিরা তৈরি হয়ে যাবে।

– গুঁড়ো দুধ, বেকিং সোডা, ময়দা একসাথে ভালো করে মিশিয়ে নিন এবং ১ চামচ ঘি দিয়ে ভালো করে হাত দিয়ে মেখে নিন। এরপর ২ টেবিল চামচ লিক্যুইড দুধ মিশ্রনে দিয়ে হালকা হাতে ধীরে ধীরে মাখিয়ে নিন।

– এভাবে অল্প করে করে লিক্যুইড দুধ দিয়ে নরম ডো তৈরি করে নিন ভালো করে মেখে। নরম করে মাখবেন। বেশী শক্ত হলে ভেতরে শিরা ধুকবে না একেবারেই, তাই নরম করে মাখাবেন। এরপর হাতে ঘি মেখে নিয়ে অল্প করে মিশ্রণ হাতের তালুতে নিয়ে গোল গোল আকার দিন। এখানেও বেশী চেপে দেবেন না, এতে শক্ত হয়ে যাবে।

– এভাবে সব মিষ্টি বানানো হয়ে গেলে ঘি বা তেল গরম করে ডুবো তেলে লালচে করে ভেজে নিন। লক্ষ্য রাখবেন যেনো যে কোনো এক দিক বেশী লালচে না হয়ে যায়। সব দিক ঘুরিয়ে সবদিকে সমান করে লালচে করে ভেজে নেবেন। ভাজার সময় মিষ্টি ফুলে দ্বিগুণ হয়ে যাবে।

– এরপর শিরা পুনরায় গরম করে চুলায় রেখে ভাজা মিষ্টি শিরাতে দিয়ে দিন। এবং অল্প আঁচে ৩/৪ মিনিট জ্বাল দিয়ে চুলা বন্ধ করে ২ ঘণ্টা এভাবেই ভিজিয়ে রাখুন শিরাতে।

– ব্যস, এরপর পরিবেশন করুন মাত্র ৩০ মিনিটের দারুণ সুস্বাদু মিষ্টি ‘গোলাপজাম’।

Photo source: foodviva.com