মেইন ম্যেনু

মাত্র ৩০ হাজার টাকায় চার চাকার গাড়ি! কোথায়, কীভাবে?

বাসে-ট্রামে-ট্রেনে চড়েই হচ্ছে দিন গুজরান। গাড়ি কেনার স্বপ্ন কী স্বপ্ন হয়েই থেকে যাবে? আপনার ভাবনার দিন শেষ। এবার ৩০ হাজার টাকায় পেয়ে যাবেন চার চাকার গাড়ি।

প্রত্যেক মধ্যবিত্তেরই স্বপ্ন থাকে থ্রি বিএইচকে ফ্ল্যাট আর চার চাকার। সংসারের চাপ, সন্তানের পড়াশুনা, নিজের খরচা— সব সামলে অনেক সময়ে অধরাই থেকে যায় সেই সব স্বপ্ন। পার্সোনাল গাড়ি তো দূরের কথা, খরচার কথা ভেবে অনেকে ট্যাক্সি চড়তেও দ্বিধা বোধ করেন।
এ বার হয়তো সেই সমস্যাটা কেটে যাবে। কেননা অল্প কিছু কড়ি খসালেই এ বার মিলে যেতে পারে একটি গাড়ি। কি, বিশ্বাস হচ্ছে না! তা হলে এক বার বাজারটা ঘুরেই নিন। এর থেকে কম দামে গাড়ি আপনি আর পাবেন না।

আপনি কি জানেন, এমন অনেকগুলি চার চাকার গাড়ি রয়েছে, যেগুলির দাম ৫০,০০০ টাকার আশেপাশে। যদিও এই গাড়িগুলির কোনওটাই ফার্স্ট হ্যান্ড নয়। আর এই সমস্ত গাড়িই কিন্তু ১৯৯০-এর দশকে ফ্যান্টাসি ছিল।
এমনই দশটি গাড়ির সন্ধান রইল আপনার জন্য—
• মিৎশুবিশি ল্যান্সার — ৪০ হাজার টাকা
• হন্ডা সিটি — ৫০ হাজার টাকা
• ওপেল অ্যাস্ট্রা — ৯০ হাজার টাকা
• টাটা সিয়েরা — ৪০ হাজার টাকা
• ফোর্ড আইকন — ৫০ হাজার টাকা
• হিন্দুস্থান মোটর্‌স কনটেসা — ৪৫ হাজার টাকা
• মারুতি ব্যালেনো অলটুরা — ৬৫ হাজার টাকা
• মারুতি জেন — ৩৫ হাজার টাকা
• পিওজিও ৩০৯ — ৪৫ হাজার টাকা
• দেউ সিয়েলো — ৩০ হাজার টাকা
হ্যাঁ, বাজারে এই গাড়িগুলির সেকেন্ড হ্যান্ড ভার্সানের দাম এখন এমনটাই। যদিও বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই এই গাড়িগুলির বয়স ১০ থেকে ১৫ বছর। কিন্তু তাতে কী! একটু খোঁজ লাগান, আর ভাল করে যাচাইয়ের পরে কিনে ফেলুন এই রকম একটি গাড়ি।