মেইন ম্যেনু

মাত্র ৩ লাখ টাকায় কিনুন নতুন গাড়ি

সবারই স্বপ্ন থাকে একটি গাড়ি হোক আমাদের। কিন্তু সাধ থাকলেও সাধ্য থাকে না অনেকেরই। তবে এবার সাধ আর সাধ্য দুটোই মিলবে এক সাথে। অর্থাৎ মাত্র ৩ লাখ টাকায় এবার স্বপ্ন পুরণ হবে আপনার। পেয়ে যাবেন সম্পূর্ণ নতুন গাড়ি।

৩ লাখের তালিকায় সেরা হল রেনল্ট কেউইড এসটিডি। কেউইড-এর মোট পাঁচটি ভার্সন রয়েছে। তার মধ্যে এসটিডি-র এক্স-শোরুম প্রাইস সবচেয়ে কম। ইনসিওরেন্স ও ট্যাক্স যোগ করে গাড়ির দাম পড়বে ৩ লাখ ১০ হাজারের মধ্যে। কেউইড এসটিডি হল একটি পেট্রল গাড়ি। মাইলেজ ২৫.১৭ কিমি/ লিটার। পাওয়ার: ৫৬৭৮ আরপিএমে ৫৪পিএস।

এসটিডি ছাড়াও রেনল্ট কিউইড-এর আরও ৪টি ভার্সন রয়েছে। সবক’টির কলকাতায় এক্স-শোরুম প্রাইস নীচে দেওয়া হল—

রেনল্ট কেউইড আরএক্সই— ৩,১৩৯৯১। রেনল্ট কেউইড আরএক্সএল— ৩,৩৯১১৬। রেনল্ট কেউইড আরএক্সটি— ৩,৭১১৭২। রেনল্ট কেউইড আরএক্সটি ড্রাইভার এয়ারব্যাগ অপশন— ৩,৮১১৯১।

এই গাড়িরও নানা ভার্সন রয়েছে। অল্টো ৮০০ এসটিডি ভার্সনের কলকাতায় এক্স-শোরুম প্রাইস ২.৭৪ লাখ। বাকি খরচ মিলিয়ে ৩ লাখের মধ্যেই হয়ে যাবে। যদি সব মিলিয়ে আর ৫০ হাজার টাকা খরচ করতে পারেন, তবে রয়েছে অল্টো ৮০০ এলএক্স। দুটি মডেলেরই মাইলেজ ২২.৭৪ কিমি প্রতি লিটার, দু’টিই পেট্রল গাড়ি এবং পাওয়ার ৬০০০ আরপিএমে ৪৮ পিএস।

এই গাড়িটির সম্পর্কে নতুন করে বলার কিছু নেই তবে শখের গাড়ি হিসেবে এ গাড়ি কেনার কোনও মানে হয় না কারণ ৭ সিটার হলেও এ গাড়ির মাইলেজ খুব কম, মাত্র ১৬.৮ কিমি প্রতি লিটার। অনেক বড় পরিবার যাদের এবং যাদের পক্ষে এই মুহূর্তে আরও বেশি দাম দিয়ে ভাল এসইউভি কেনা সম্ভব নয়, একমাত্র তারাই এই গাড়ি কেনার কথা ভাবতে পারেন। না হলে এ গাড়ির মূল উপযোগিতা কিন্তু কমিউনিটি কার হিসেবে। ক্লাবের গাড়ি, গানের দলের গাড়ি হিসেবে ঠিকঠাক।

এই গাড়িরও বিভিন্ন ভার্সন রয়েছে এবং তাদের দামেরও হেরফের রয়েছে। ৩ লাখের মধ্যে আসবে জেন এক্স-এর ‘এক্সই’, ‘এক্সএম’ এবং ‘এক্সটি’। মাইলেজ ২৩.৬ কিমি প্রতি লিটার। এগুলি সবই পেট্রল গাড়ি। তবে ন্যানো জেন এক্স-এর একটি সিএনজি ভার্সন রয়েছে, যার দামও সব মিলিয়ে ৩ লাখের মধ্যেই পড়বে। সিএনজি গাড়িটির মাইলেজ ৩৬ কিমি প্রতি লিটার।