মেইন ম্যেনু

মাথায় নৌকা এঁকে নির্বাচনী প্রচার

ভোলার ৪১টি ইউনিয়নে নির্বাচনী প্রচার জমে উঠেছে। দিনভর প্রচার আর উঠান বৈঠকে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা।

পুরুষদের পাশাপাশি সংরক্ষিত সদস্য পদে নারী প্রার্থীরা সমানতালে যার যার এলাকায় গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন।

প্রচারের ধরনেও রয়েছে ভিন্নতা। কেউ গান বাজিয়ে, কেউ মাইকিং করে কেউবা মাথা ন্যাড়া করে প্রচারে অংশ নিচ্ছে। এ নিয়ে সাধারনের মাঝে বেশ কৌতূহলের সৃষ্টি হয়েছে।

যেমন ভোলার সদরের শিবপুর ইউনিয়নে অভিনব কায়দায় নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিচ্ছে। তপু ও আল-আমিন নামের এই দুই কিশোর মাথা আংশিক ন্যাড়া করে নৌকা এঁকে ঘুরে বেড়াচ্ছে। প্রার্থীর মিছিল, মিটিং ও গণসংযোগে যাচ্ছে তারা।

আল-আমিন জানায়, সে এখনও ভোটার হয়নি, তবে নৌকাকে ভালবাসে। তাই নৌকা প্রতীকের জন্য নিজের চুল ছেঁটে লোগো তৈরি করেছে। এতে তার খুব ভালো লাগছে।

অপর কিশোর তপু জানায়, আমাদের দেখে অনেকের ভালো লাগে, তাই আরো বেশি উৎসাহ খুঁজে পাচ্ছি। তাছাড়া প্রতীকটা সবার নজরে আসছে। ভিন্ন রকম এক অনুভূতি আমাদের।

শিবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী জসিম উদ্দিন বলেন, এরা আমাকে এবং নৌকা প্রতীককে ভালোবেসে ন্যাড়া মাথায় প্রতীক এঁকেছে।

প্রসঙ্গত, শিবপুর ইউনিয়ন থেকে পাঁচজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জসিম উদ্দিন, স্বতন্ত্র প্রার্থী সিরাজুল ইসলাম, বিএনপির প্রার্থী নুর হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী নুরে আলম ও ইসলামি আন্দোলনের প্রার্থী রফিকুল ইসলাম।



« (পূর্বের সংবাদ)