মেইন ম্যেনু

মাদক কেড়ে নিল দম্পতিকে, সন্তান মারা গেল ক্ষুধা-তৃষ্ণায়

বাড়িতে কেবল ছিলেন তরুণ দম্পতি ও তাঁদের পাঁচ মাসের সন্তান। অত্যধিক মাদক গ্রহণে মৃত্যু হয় এই দম্পতির। আর বাড়িতে যথেষ্ট খাবার থাকলেও খেতে না পেরে ও তৃষ্ণায় এর তিন-চার দিন পর মারা যায় তাঁদের শিশুসন্তান।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যের জনসটাউন শহরের কার্নভিল এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। সংবাদ সংস্থা এপি এ তথ্য জানিয়েছে।

স্থানীয় পুলিশ জানায়, গত সপ্তাহের কোনো সময় জেসন চেম্বারস (২৭) ও চেলসি কারডারো (১৯) মারা যান। ওই সময় বাড়ির দোতলায় নিজের দোলনায় ছিল তাঁদের পাঁচ মাস বয়সী সন্তান সামার চেম্বারস। ক্ষুধা-তৃষ্ণায় তিন-চার দিন কষ্ট পেয়ে মারা যায় ওই শিশু।

গত বৃহস্পতিবার শিশুসহ দম্পতির মৃত্যুর খবর জানা যায়। পরে ক্যামব্রিয়া কাউন্টি ডিস্ট্রিক অ্যাটর্নি কেলি ক্যালিহান সাংবাদিকদের বলেন, কর্তৃপক্ষ জেসন ও চেলসি দম্পতির বাড়িতে মাদকদ্রব্য পেয়েছে। মাত্রাতিরিক্ত হেরোইন সেবনের কয়েক মিনিটের মধ্যেই এই দম্পতির মৃত্যু হয়েছে।

জানা গেছে, ওই বাড়িতে অতিরিক্ত মাদক গ্রহণের ঘটনা এটিই প্রথম নয়। এর আগেও এমন ঘটনা ঘটেছে।

জনসটাউন পুলিশের ক্যাপ্টেন চ্যাড মিলার বলেন, অতিরিক্ত মাদক গ্রহণের ঘটনায় গত মাসে কর্তৃপক্ষ ওই বাড়িতে গিয়েছিল। মাদক গ্রহণকারী জেসন চেম্বারসকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছিল।

সর্বশেষ ৭ ডিসেম্বর শিশুকল্যাণ বিষয়ক কর্মকর্তা ওই বাড়ির শিশুর অবস্থা পর্যবেক্ষণ করেছিল। পর্যবেক্ষণে বলা হয়, ওই বাড়ি শিশুর বসবাসের উপযুক্ত এবং সেখানে শিশুর জন্য যথেষ্ট খাবার আছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজেস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের হিসাবমতে, হেরোইনসহ ব্যথানাশক বিভিন্ন ওষুধের ব্যবহার মার্কিনদের মধ্যে আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে। ২০১৪ সালে এমন হেরোইন ও ব্যথানাশক ব্যবহারে ২৮ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়, যা ১৯৯৯ সালে এমন মৃত্যুর হারের চার গুণ।