মেইন ম্যেনু

‘মাধ্যমিকে শিক্ষক নিয়োগে কমিশন হবে’

উপযুক্ত শিক্ষক নিয়োগের জন্য মাধ্যমিক শিক্ষক নিয়োগ কমিশন গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এটা পিএসসির ধাচে গড়ে তোলা হবে।

সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সভাকক্ষে মঙ্গলবার বিকেলে জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত অধিবেশন শেষে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষার মান উন্নয়নে সবার সহযোগিতা চেয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, প্রশ্ন ফাঁসের সঙ্গে যে সব শিক্ষক জড়িত এবং পরীক্ষার হলে যেসব শিক্ষক নিজেদের স্বার্থে শিক্ষার্থীদের এমসিকিউ প্রশ্নের উত্তর বলে দেন, তাদের ছাড় দেওয়া হবে না।

তিনি বলেন, দেশে যাতে মানসম্মত শিক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তোলা যায়, সেই জন্য সম্মেলনে তারা ডিসিদের সহযোগিতা চেয়েছেন। তারা ডিসিদের সমস্যা ও চাহিদার কথা শুনেছেন। তাদের প্রস্তাব পেয়েছেন। সেগুলো বিবেচনা করা হবে।

নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, সম্মেলনে ডিসিরা তাদের এলাকার শিক্ষা নিয়ে নানা সমস্যা তুলে ধরে কিছু প্রস্তাবও দিয়েছেন। ডিসিরা বলেছেন- পরীক্ষার সময় অন্য শ্রেণির ক্লাস নেওয়া যায় না। এ কারণে স্কুলে পরীক্ষার জন্য বড় হল নির্মাণের প্রস্তাব করেছেন তারা। উত্তরে তিনি বলেছেন, এটা তো অনেক সময়ের ব্যাপার। পর্যায়ক্রমে এগুলো করা হবে।

এর আগে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে টিম ওয়ার্ক করতে তারা ডিসিদের সহযোগিতা চেয়েছেন। প্রাথমিক শিক্ষার বরাদ্দকৃত টাকা সঠিকভাবে ব্যয় করতে ডিসিদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ‘শাপলা’ হলে মঙ্গলবার সকাল ১০টায় ‘জেলা প্রশাসক সম্মেলন-২০১৫’ শুরু হয়। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকাল ১০টা ৫৫ মিনিটে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন। তিন দিনব্যাপী সম্মেলন চলবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত।

সরকারের নীতি-নির্ধারক ও জেলা প্রশাসকদের মধ্যে মতবিনিময় এবং প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দেওয়ার জন্য প্রতি বছর ডিসি সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।



« (পূর্বের সংবাদ)