মেইন ম্যেনু

মানুষের কল্যাণে নজর রেখে চিকিৎসা করুন : প্রধানমন্ত্রী

মানুষের কল্যাণ ও সেবার দিকে নজর রেখে চিকিৎসকদের দায়িত্ব পালন করার আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘প্রতিটি মানুষই উন্নত জীবন পাবে আমরা সে চেষ্টা করে যাচ্ছি। সবারই চিকিৎসা পাওয়ার অধিকার রয়েছে। হতদরিদ্র মানুষ যেন দেশে চিকিৎসা বঞ্চিত না হন সেদিকে বিশেষ খেয়াল রাখতে হবে। স্বাচিপের যারা সদস্য রয়েছেন, তারা জনকল্যাণে কাজ করবেন। সাধারণ মানুষকে সেবা দেবেন।’

চিকিৎসকদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘নিজে কি পেলাম কি পেলাম না সেটা চিন্তা না করে দেশের মানুষের কি দিতে পারলাম সে চিন্তা করবেন। মানুষের সঙ্গে ভাল ব্যবহার করবেন। ভালভাবে তাদের সঙ্গে কথা বলতে হবে। ব্যবহার দিয়ে তাদের আস্থায় নিয়ে আসতে হবে। তারা যেন চিকিৎসা বঞ্চিত না হয়। আপনারা মহৎ পেশায় নিয়োজিত। মানুষের কল্যাণ ও সেবার দিকে নজর রেখে আপনারা আপনাদের দায়িত্ব পালন করবেন এটাই আশা করি।’

শেখ হাসিনা বলেন, যখন দেশ উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে ঠিক তখনই যারা স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না, মুক্তিযুদ্ধ চায়নি তারা একের পর এক হত্যাকাণ্ড চালাচ্ছে। সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনের নামে মানুষ হত্যা করা হয়েছে। আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারা হয়েছে। এক বছর তিন মাস ধরে তারা একই তাণ্ডব চালায়। আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মানুষ হত্যা করে। এখন শুরু হয়েছে গুপ্ত হত্যা। যখন তারা দেখলো দেশের মানুষ খুন করে সরকার উৎখাত করা যায় না তখন বিদেশিদের ওপর হামলা করে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে চাচ্ছে।

sdfghjk

প্রধানমন্ত্রী তার সরকারের সময় দেশের স্বাস্থ্যখাতের বিভিন্ন উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরে বলেন, আমরা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীন করেছি। বিশ্বের বুকে আমরা মাথা উঁচু করে দাঁড়াবো। ২০২১ সালের মধ্যে দেশকে মধ্য আয়ের দেশে এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলব।

সবশেষে তিনি স্বাচিপের সম্মেলন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হওয়ার কামনা করেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি প্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. অধ্যাপক আ ফ ম রুহুল হক। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য প্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী শেখ ফজলুল করিম সেলিম, স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন, আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক বদিউজ্জামান ভুইয়া ডাবলু, স্বাচিপের মহাসচিব ডা. ইকবাল আর্সলান, ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন প্রমুখ।