মেইন ম্যেনু

মার্কিন মুল্লুকের পিচ্চি মেয়র!

যুক্তরাষ্ট্রের মত দেশে যেখানে খুন খারাপি আর চুরি ডাকাতি লেগেই থাকে সেখানকার এক ছোট্ট শহরের মেয়র হয়েছে এক পুঁচকে শিশু। ওই পিচ্চি মেয়রের বয়স মাত্র তিন বছর। মায়ের কোল থেকে নেমেই সে ‘দুষ্টের দমন আর শিষ্টের পালন’য়ের গুরু দায়িত্ব নিজের সরু কাধে তুলে নিয়েছে।

গত ২ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা রাজ্যের ছোট্ট শহর ডোরসেটের মেয়র নির্বাচিত হয়েছে জেমস টুফটস। এ দায়িত্ব হাতে পাওয়ার পর থেকেই শহরের সাবেক মেয়র এবং নিজের বড় ভাই রবার্ট তুফটসের কাছ থেকে তাকে মুফতে প্রচুর উপদেশ পাচ্ছে জেমস। এ সম্পর্কে ৬ বছরের রবার্টের সরল স্বীকারোক্তি,‘আমি তাকে বলেছি, লোকজনের সঙ্গে সবসময় হাসিমুখে কথা বলবে এবং কখনো বাচ্চাদের মত আচরণ করবে না।’ সদ্যই মেয়র পদ থেকে অবসর নিয়েছে সে। বয়স কম হলে কি হবে, অভিজ্ঞতা বলে কথা!

ডোরসেট শহরের আকর্ষণীয় বার্ষিক খাদ্য প্রতিযোগিতা চলাকালে মেয়র প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল চলতি মাসের দুই তারিখে। সেখানে লটারির মাধ্যমে দু বছরের জন্য মাত্র ২২ বাসিন্দার শহর ডোরেসেটের মেয়র নির্বাচত হয় তিন বছরের জেমস। মেয়র হওয়ার পর তার মূল্যবান অনুভূতি,‘আমার বেশ ভালোই লাগছে।’

kacবড় ছেলে রবার্টের পর ছোট ছেলেও মেয়র হওয়ায় দারুন খুশি তাদের মা এমা টাফটস। ২০১৩ এবং ২০১৪ সালে মেয়র হিসেব দায়িত্ব পালন করেছে রবার্ট। সেও নিজের তিন বছর বয়সেই শহর চালিয়েছে। তার ভাই জেমস তার চেয়ে মাত্র দু দিন কম সময়ে মেয়র হল।

jgcrযুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত দাতব্য সংস্থা রোনাল্ড ম্যাকডোনাল্ড হাউস চ্যারেটি এবং সালভেশন বাহিনীর পক্ষে ফান্ড সংগ্রহের জন্য লটারির মাধ্যমে মেয়র নির্বাচনের চল রয়েছে ডোরসেট শহরে। বিচিত্র এই নিয়মের কারণেই সেখানে যে কেউ মেয়র পদে দাঁড়াতে পারে। শিশু তো শিশু, একবার তো এক মোরগকেই মেয়র প্রার্থী হিসেবে দাঁড় করিয়ে দেয়া হয়েছিল। তবে লটারিতে না জেতায় সে আর মেয়র হতে পারেনি।