মেইন ম্যেনু

মালয়েশিয়ায় অবৈধদের ধরিয়ে দিলে পুরস্কার

মালয়েশিয়ায় অবৈধদের ধরিয়ে দিলে আড়াই হাজার রিংগিত পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। দেশটির ইমিগ্রেশন প্রধান দাতু মুস্তাফার আলী বৃহস্পতিবার এক সাক্ষাৎকারে এ ঘোষণা দিয়েছেন বলে দাবি করেছে মালয়েশিয়ান দৈনিক ব্যারিটা হারিয়ান। তবে দেশটির সংবাদ মাধ্যমে এ সাক্ষাৎকার প্রকাশ হওয়ার পর মুস্তাফার আলী তা অস্বীকার করেছেন।

ওই সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, মালয়েশিয়ার সাধারণ জনগণ যদি অবৈধ শ্রমিককে ধরিয়ে দিতে সাহায্য করে তাকে আড়াই হাজার রিংগিত পুরস্কার প্রদান করা হবে। এখন সময় এসেছে অবৈধ শ্রমিকদের সঙ্গে যুদ্ধ ঘোষণা করার। যারা অবৈধভাবে মালয়েশিয়ায় কাজ করছেন তাদের ধরিয়ে দেবার জন্য পুরস্কার দেবার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, অনেক সাধারণ জনগণ অবৈধদের সম্পর্কে জানার পরেও তাদের ধরিয়ে দিতে ইমিগ্রেশনকে সাহায্য করছে না। এই পুরস্কার ঘোষণা করার ফলে আমাদের সঙ্গে কাজ করবে বলে আশা রাখি। দল-মত নির্বিশেষে সবাইকে একসাথে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি সকলের কাছে এ বিষয়ে এর পক্ষে বিপক্ষে মতামত চেয়েছেন ।

মুস্তাফার আলী সকল বিদেশি শ্রমিকদের একটি সাধারণ ডাটাবেস তৈরি করার প্রস্তাব করেন। যেখানে অনলাইনের মাধ্যমে সহজেই সকল অবৈধদের সম্পর্কে জানা যাবে এবং ভুয়া কার্ড দিয়ে কেউ যদি ব্যাংক একাউন্ট করতে যায় তাহলে তাদের গ্রেফতার করা হবে বরে জানান।

এদিকে গণমাধ্যমে প্রকাশিত অবৈধ শ্রমিক আটকে পুরস্কৃত করা হবে, এ খবর অস্বীকার করে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা করে মালয়েশিয়া অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক মুস্তফার আলী বলেন, পূর্বে এ ধরনের উদ্যোগ ছিল না ৷ তিনি প্রস্তাব এনে বলেন, এ ধরনের উদ্যোগে নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, “এটি মানুষের নিরাপত্তা বিপদগ্রস্ত করতে পরে বা অবৈধদের গ্রেফতারের সময় আইন ভঙ্গ করতে পারে ৷”

শুক্রবার মহাপরিচালক আরেকটি বিশেষ সাক্ষাৎকারে জানান যে, “মানব পাচার সিন্ডিকেটকে দমন করা কঠিনে পরিণত হয়েছে। কারণ কিছু স্থানীয় ব্যক্তি তাদের সঙ্গে এ কাজে লিপ্ত রয়েছে । তিনি আরো বলেন, অভিবাসন বিভাগের পরিচালনায় সীমান্তসহ সব যায়গায়ই অভিযান চালাচ্ছে মানব পাচার বন্ধের জন্য।