মেইন ম্যেনু

মালয়েশিয়ায় কর্মী নিতে সমঝোতা সইয়ের সিদ্ধান্ত সোমবার

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসির সঙ্গে সোমবার বৈঠক করবেন ঢাকায় সফররত মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সেক্রেটারি জেনারেল শারফুদ্দিন বিন এইচজে কাসিমের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধি দল। রাজধানীর ইস্কাটনে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে সকাল ৯টায় এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, বৈঠকে বাংলাদেশ থেকে বিপুলসংখ্যক কর্মী নেওয়ার প্রক্রিয়া চূড়ান্তসহ উভয় দেশের মধ্যে এ ব্যাপারে (বিজনেস টু বিজনেস) একটি সমঝোতা সইয়ের তারিখও চূড়ান্ত হতে পারে।

সূত্রটি জানায়, মূলত মালয়েশিয়ান এই প্রতিনিধি দল জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠক করার জন্য তিন দিনের ঢাকা সফরে এলেও বিজনেস টু বিজনেস (বি টু বি) বা বেসরকারিভাবে মালয়েশিয়ায় জনশক্তি রফতানির বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে আলোচনায় ঠাঁই পাবে। বৈঠকে কর্মীর বেতন-ভাতা ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা চূড়ান্ত করে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেওয়ার প্রক্রিয়া চূড়ান্ত হবে। পাশাপাশি মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত বিপুলসংখ্যক অবৈধ বাংলাদেশী কর্মী ফেরত আনার বিষয়েও আলোচনা হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। বর্তমানে দেশটিতে দুই লাখের বেশি বাংলাদেশী অবৈধভাবে বসবাস করছেন বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে বেসরকারিভাবে জনশক্তি রফতানিকারকদের সংগঠন বায়রা সভাপতি আবুল বাশার বলেন, ‘সোমবারের বৈঠকে বি টু বি’র পাশাপাশি জি টু জিতে লোক পাঠানোর বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে। এ ছাড়া ওদের ওখানে (মালয়েশিয়া) আমাদের কিছু ইলিগ্যাল কর্মী আছে। তাদের ফিরিয়ে আনার বিষয়েও আলোচনা হবে।

তিনি বলেন, এই প্রতিনিধি দল মালয়েশিয়ায় ফিরে যাওয়ার পর তাদের মন্ত্রী ঢাকায় আসবেন অথবা আমাদের মন্ত্রী মালেয়েশিয়া গিয়ে একটি সমঝোতা সই করবেন।

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব খন্দকার ইফতেখার হায়দার বলেন, ‘কাল (সোমবার) উনাদের সঙ্গে আলোচনার পরই বলা যাবে সে দেশে কর্মী প্রেরণে কবে সমঝোতা সই হবে। এর আগে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাই না।’

সোমবারের বৈঠকে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ছাড়াও মন্ত্রণালয়ের সচিব খন্দকার ইফতেখার হায়দার এবং জনশক্তি রফতানি ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) মহাপরিচালক বেগম শামসুন নাহারসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অংশ নেবেন।

অন্যদিকে মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সেক্রেটারি জেনারেল শারফুদ্দিন বিন এইচজে কাসিম ছাড়াও একই মন্ত্রণালয়ের শ্রম বিভাগের (ব্যবস্থাপনা) ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল সারি বিন আব্দুর রহমান, ডেপুটি আন্ডার সেক্রেটারি পলিসি ডিভিশন (লেবার পলিসি ব্রাঞ্চ) জুল্কফ্লি বিন ওয়ান সেতাপা, মানবসম্পদ মন্ত্রণালয়ের আন্ডার সেক্রেটারি জামরি বিন মাট জাইন এবং হিউম্যান এ্যাফেয়ার্সের প্রধান সহকারী সেক্রেটারি জালিখা বিনতি মসলিম বৈঠকে থাকবেন বলে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।