মেইন ম্যেনু

মাশরাফি ও তার ছেলের জন্মদিন আজ

ব্যাপারটা কাকতালীয়। তবে মাশরাফির কাছে রোমাঞ্চের, উচ্ছ্বাসের। যেদিনে তিনি পৃথিবীতে এসেছিলেন, সেই একই দিনে তার ছেলে সাহেলও জন্মগ্রহণ করে। ৫ অক্টোবর। কিংবদন্তি এক মাশরাফি আর তার ছেলের জন্মদিন।

খুলনা বিভাগের নড়াইলে জন্ম নেয়া এই ক্রিকেটার বাংলাদেশকে কী দিয়েছেন, সেই প্রশ্নের উত্তর খোঁজা হবে দারুণ পিপাসায় গরম পানি পানের মতো। মাশরাফি বাংলাদেশকে কী দেননি বরং সে প্রশ্ন তোলা যায়। তবু সব ছাপিয়ে অস্ট্রেলিয়ার একটি পত্রিকার শিরোনামই পিপাসা মিটিয়ে দেয়, ‘মাশরাফির বাংলাদেশকেই ভয় অস্ট্রেলিয়ার।’

এই যে অদম্য এক বাংলাদেশ, যারা এখন মরার আগে মরে না, বিনা যুদ্ধে যারা সূচ্যগ্র মেদিনী দেয় না-তারা তো মাশরাফিরই শিষ্য।

২০১৪ সালের শুরুতে ওয়ানডেতে রীতিমতো ধুঁকছিল বাংলাদেশ। মুশফিকুর রহিমের নেতৃত্বে হারের মিছিলে নাম লিখিয়েছিল টাইগাররা। ওই বছরের শেষ দিকেই পাশার দান উল্টে যায়। মুশফিককে সরিয়ে ওয়ানডে দলের নেতৃত্বে আনা হয় মাশরাফি বিন মর্তুজাকে। যার খোলনলচে বদলে যায় বাংলাদেশ।

বছরের শেষ দিকে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ, বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনাল, পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ, ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয়। সবই যে মাশরাফির ছায়ায়।