মেইন ম্যেনু

মায়ের কাছে খাতা-কলম চেয়ে না পেয়ে ডিমলায় ছাত্রীর আত্মহত্যা

হামিদা আক্তার বারী, ডিমলা (নীলফামারী) থেকে: গতকাল মঙ্গলবার সন্ধায় নীলফামারীর ডিমলা উপজেলায় মায়ের কাছে এক ৬ষ্ট শ্রেণীর ছাত্রী বই-কলম-খাতার বায়না ধরে তা না পেয়ে অবশষে আত্মহত্যা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছ।

জানা যায়, উপজেরার ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়েনের দক্ষিন সোনাখুলি গ্রামের মৃত ঝুমুর আলীর শিশু কন্যা মৌসুমী আক্তার (১১) তার বাবার বাড়ী দক্ষিন দুয়ারী পড়ার ঘরে আত্মহত্যা করে।

ঘটনার সূত্র ধরে ঐ ছাত্রীর মা তারা বানু (৩৫)’র সাথে কথা হলে তিনি জানান, আমার মেয়ে মৌসুমী শালতলা দাখিল মাদ্রসায় ৬ষ্ট শ্রেণীতে পড়ে। মৌসুমী যখন খুব ছোট তখনেই তার বাবা মারা যায়। সে থেকে আমি কোলের শিশু সন্তান মৌসুমীকে নিয়ে অভাব-অনটনের সংসারে কোন ভাঁবে বেঁচে আছি। অতিকষ্টে মেয়েটিকে লেখা পড়া করাইতেছি।

ঘটনার দিন আমার কাছে কলম,খাতা ও নোট বই কিনে চায়, আমি বলেছিলাম টাকা হলে পড়ে কিনে দিবো। কিন্তু মেয়ে জেদ ধরে বলে আজকেই কিন্ েদিতে হবে। এ কারনে আমি মেয়েটির সাথে রাগারাগি করেছি।

এ সামান্য ঘটনায় আমার মেয়ে তার পড়্রা ঘরে গিয়ে নিজের ওড়না পেচিয়ে ফাঁস টাংগিয়ে আত্মহত্যা করে। এ ঘটনায় ডিমলা থানা পুলিশ মেয়েটির অপমৃত্যুর ঘটনা উল্লখ করে একটি ইউডি মামলা করেন। যার নম্বর- ০২/১৬ তারিখ- ০৯/০২/২০১৬ইং।

এ ব্যাপারে ডিমলা থানা পুলিশের আিফসার ইনচার্জ (ওসি) রহুল আমিন খাঁন ঘটনার সতত্য নিশ্চিত করে বলেন আত্মহত্যার ঘটনায় কোন অভিযোগ না থাকায় ইউডি মামলা রুজ্জু করা হয়েছে।