মেইন ম্যেনু

‘মায়ের জামা খুলে নিচ্ছে পুলিশ, কাঁদছে মেয়ে’

ফ্রান্সের ১৫টি শহরে ‘বুরকিনি’ (সাঁতারের বড় পোশাক) নিষিদ্ধ করার পর এক লজ্জাজনক ঘটনার সাক্ষী হলো বিশ্ববাসী। দেশটির একটি সমুদ্র সৈকতে মেয়ের সামনেই মায়ের জামা (এক ধরনের বড় হিজাব) খুলে নিয়ে গেল পুলিশ।

লরি নিয়ে জঙ্গি হামলার ঘটনায় বিশ্বব্যাপী পরিচিতি পায় ফ্রান্সের নিস শহর। এই শহরের সমুদ্র সৈকতেই এ ঘটনা ঘটল।

জনগণের ‘উদ্বেগের’ বিষয়টি আমলে নিয়ে প্রায় ১৫টি শহরে ‘বুরকিনি’ নিষিদ্ধ করে কর্তৃপক্ষ। সাধারণত সৈকতে এবং সাঁতারে বিকিনির পরিবর্তে মুসলিম নারীরা তুলনামূলক বড় পোশাক ‘বুরকিনি’ পরে থাকেন।

অবশ্য নিসের ঘটনায় এই মুসলিম নারী বুরকিনি নয়, একটি ক্লাসিক হিজাব পরিধান করেছিলেন। সেটা পরেই তিনি সৈকতে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন।

এই মুহূর্তে সেখানে হাজির সৈকতের সশস্ত্র চার পুলিশ। তারা ওই নারীকে ‘বুরকিনি’ সদৃশ ওই ক্লাসিক হিজাব খুলে দিতে বলে। পুলিশের নির্দেশ মতো ওই জামা খুলে দেন তিনি।

লজ্জাজনক ওই পরিস্থিতির বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রত্যক্ষদর্শী ম্যাথিডে কোসিন বলেন, ‘সবচেয়ে দুঃখজনক ঘটনা হলো- তখন লোকজন নিজ দেশে ফেরো (গো হোম) বলে চিৎকার করছিল এবং কেউ কেউ পুলিশের প্রশংসা করছিল। আর তখন তার মেয়েটি কাঁদছিল।’

সিয়াম নামের ভুক্তভোগী ওই নারী বলেন, ‘সৈকতের পানিতে নামার কোনো পরিকল্পনা আমার ছিল না। আমি আমার পরিবারের সঙ্গে সৈকতে অবস্থান করছিলাম।’