মেইন ম্যেনু

মায়ের মত কেন হয় মেয়েরা?

বেশির ভাগ ক্ষেত্রে মেয়েরা মায়ের মত হয়। মায়ের দোষ- গুণ এবং কথা বলার ধরণও মেয়ে সন্তানের ওপর প্রভাব ফেলে। মায়ের আচার-আচরণও মেয়ের ক্ষেত্রে দেখা যায়।

মায়ের সাথে সখ্যতাও বেশি থাকে মেয়েদের। বিষয়টি শুধু কথার কথা নয়, প্রমাণিত গবেষণায়। গবেষণার ফলাফলে কি উঠে এল তা জেনে নিই।

সানফ্রানসিসকোর ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয় গবেষণা করে দেখেছেন, শারীরিক প্রক্রিয়ায় কন্যাশিশু জন্মগতভাবেই হয় মায়ের মত। গবেষণায় দেখা যায়, মস্তিষ্কের কর্টিকলিম্বিক সিস্টেম যা আমাদের আবেগ, প্রত্যাশা ও হতাশাকে নিয়ন্ত্রণ করে তা মায়ের সাথে মেয়ের সম্পৃক্ততা রয়েছে।

গবেষকরা পরীক্ষাটি চালান ৩৫টি সুস্থ পরিবারের ওপর। গবেষণাটি করেছিলেন ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর ফিউমিকো হফট এবং তার দল।

গবেষণায় সব পরিবারের প্রতিটি সদস্যের মস্তিষ্কের এমআরআই টেস্ট করা হয়। এর আগে জেনে নেয়া হয় পরিবারের কারো বিষন্নতা বা এমন সমস্যা আছে কিনা।

গবেষণায় দেখা যায়, চিন্তার চেয়েও জটিল মানুষের মস্তিষ্কের বিন্যাস। এ জন্য গবেষক প্রধানকে বেশ পরিশ্রম করতে হয়। মানুষের শারীরবৃত্তীয় প্রতিটি বিষয়কে যুক্ত করেন তিনি। পরীক্ষা করেন মস্তিষ্কের সব সংযোগ।

গবেষণায় সফল হন হফট এবং তার দল। তারা দেখলেন, সব পরিবারেই মেয়ে সন্তানরা মায়ের অধিকাংশ বৈশিষ্ট্য নিয়ে বেড়ে উঠছে। কম বেশি সব মেয়েই মায়ের শারীরিক, মানসিক বৈশিষ্ট্য পেয়ে থাকে।

মেয়েরা যে মায়ের মত, এটি শুধু ধারনা নয়, এটি বৈজ্ঞানিক উপায়ে পরীক্ষিত সত্য।