মেইন ম্যেনু

মায়ের মৃত্যুর পর স্ত্রীর আচরণে মর্মাহত জনি ডেপ

সম্প্রতি বিশ্বজুড়ে সংবাদের শিরোনাম হলেন বিশ্বখ্যাত হলিউড সুপারস্টার অভিনেতা জনি ডেপ। তবে এবার কোনো সাড়া জাগানো সিনেমার জন্য নয়! বরং একান্ত ব্যক্তিগত খবরে। গত শুক্রবার(২০মে) নিজের মা বিটি স্যু পালমার মারা যাওয়ার তিন দিন পর বর্তমান স্ত্রী ও অভিনেত্রী আম্বার হেয়ার্ড’-এর ডিভোর্সের খবরে রীতিমত বিধ্বস্ত বিশ্বখ্যাত অভিনেতা জনি ডেপ।

গত ২০মে শুক্রবার দীর্ঘদিন অসুস্থতায় ভুগে মারা গেছেন জনি ডেপের মা বিটি স্যু আম্বার। যে মা’কে প্রথমবার সেরা অভিনেতা হিসেবে অর্জন করা অস্কার অ্যাওয়ার্ডটি উপহার দিয়েছিলেন, সে মায়ের মৃত্যুর পর দারুনভাবে মর্মাহত জনি ডেপ। আর এরমধ্যেই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে যে, স্ত্রী আম্বার হেয়ার্ড ডিভোর্সের আবেদন করেছেন।

সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হচ্ছে, জনি ডেপের মায়ের মৃত্যুর তিনদিন পরেই তার কাছে ডিভোর্সের আবেদন করেছেন বর্তমান স্ত্রী আম্বার হেয়ার্ড। তবে কী কারণে জনি ডেপের দুঃসময়ে তার স্ত্রী এমন সিদ্ধান্ত নিল তা জানা যায়নি। তবে ধারনা করা হচ্ছে, জনি ডেপের মায়ের মৃত্যুর পর জনির আগের স্ত্রীর দুই সন্তানকে কোনোভাবে মেনে না নিতে পারায় অভিনেত্রী আম্বার হেয়ার্ড জনিকে ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এছাড়া জনি ডেপের সদ্য প্রয়াত মা, তার বোন এবং তার দুই সন্তানও নাকি জনি ডেপের স্ত্রী হিসেবে অ্যাম্বার হেয়ার্ডকে মেনে নিতে পারেননি।

সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরে আরো বলা হয়েছে, ৩০ বছর বয়সী স্ত্রী আম্বার হেয়ার্ড বিখ্যাত অভিনেতা জনি ডেপের সঙ্গে সংসার করতে চাইছেন না বলে ডিভোর্সের আবেদন করেছেন জনির মায়ের মৃত্যুর ঠিক তিনদিন পর। গত তিন চারদিন ধরে এমন খবর যখন চারদিকে ছড়িয়ে গেছে ঠিক তখন এমন গুঞ্জন বিষয়ে মুখ খুললেন ‘পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ান’ খ্যাত তারকা অভিনেতা জনি ডেপ।

স্ত্রীর ডিভোর্সের প্রশ্নে কিছুটা চটেছেনও তিনি। আমেরিকার গণমাধ্যম ডিভোর্সের আবেদনের বিষয়টিকে সত্য বলে প্রচার করলেও জনি ডেপ এমন খবরকে খুব একটা পাত্তা দেননি। তাছাড়া মায়ের মৃত্যু শোকে তিনি এখনো মূহ্যমান বলেও গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন জনি।

৫২ বছর বয়সী হলিউড সুপারস্টার জনি ডেপের আগের তরফের দুই সন্তান রয়েছে। এরমধ্যে লিলি রোজ ডেপের বয়স ১৬ এবং জ্যাক ডেপ-এর বয়স ১৪ বছর। অন্যদিকে বর্তমান স্ত্রী ও হলিউড অভিনেত্রী আম্বার হেয়ার্ডকে তিনি বিয়ে করেন ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারিতে। ২০১১ সালে ‘দ্য রাম ডায়েরী’ ছবির শুটিং সেটে দুজনের পরিচয় ও তারপর ঘনিষ্ঠতা জন্মে।

প্রসঙ্গত, গত ২০ মে শুক্রবার লস অ্যাঞ্জেলসের বাড়িতে দীর্ঘদিন রোগে ভোগে ৮১ বছর বয়সে মারা যান জনি ডেপের মা। ২০০৪ সালে ‘পাইরেটস অব দ্য ক্যারাবিয়ান: দ্য কার্স অব ব্ল্যাক পার্ল’ ছবির জন্য সেরা অভিনেতা হিসেবে অস্কার অ্যাওয়ার্ড অর্জন করে প্রথম মায়ের হাতেই দিয়েছিলেন জনি ডেপ।