মেইন ম্যেনু

পল্লী বিদ্যুতের গাফিলতির অভিযোগ

মিঠাপুকুরে ছিঁড়ে পড়া তারে জড়িয়ে রিক্সা চালকের মৃত্যু

মোঃ শামীম আখতার, উপজেলা প্রতিনিধি, মিঠাপুকুর (রংপুর)॥ রংপুরের মিঠাপুকুরে প্রবলবেগে বয়ে যাওয়া কালবৈশাখীর ঝড়ে পল্লী বিদ্যুতের ছিঁড়ে পড়া তারে জড়িয়ে ছাদেক আলী (৬০) নামে এক রিক্সা চালকের মৃত্যু হয়েছে। রোববার রাত সাড়ে ১২ টার দিকে রিক্সা নিয়ে বাড়ি যাওয়ার পথে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। এর আগে তার ছিঁড়ে যাওয়ার বিষয়টি পল্লী বিদ্যুৎ কার্যালয়ে জানানো হলেও কোন ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে।

এলাকাবাসি সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার আব্দুল্যাহ্পুর গ্রামের রিক্সাচালক ছাদেক আলী প্রতিদিনের মত সারাদিন রিক্সা চালিয়ে রাতে চাল-ডাল কিনে বাড়ি ফিরছিলেন। সঙ্গে, বিধি বাম। তার বাড়িতে গিয়ে পরিবারের সাথে দেখা হলোনা। স্ত্রী সন্তান পেল তার লাশ।

গ্রামবাসি বলেন, রোববার রাতে প্রবল বেগে কালবৈশাখীর ঝড় বয়ে যায়। এতে, রংপুর-ঢাকা মহাসড়কের মিঠাপুকুর উপজেলা সদরের অদূরে পাকাপুল নামক স্থানে পল্লী বিদ্যুতের তারে গাছপালা পড়ে তার ছিড়ে পরে সড়কের ওপর। বিষয়টি স্থানীয়রা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর কর্তৃপক্ষকে জানায়। কিন্তু, তারা কোন ব্যবস্থা নেয়নি। এরই মধ্যে রাত সাড়ে ১২ টার দিকে রিক্সা চালিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন ছাদেক আলী। চাল-ডাল কিনে বাড়ি ফিরে পরিবারের সাথে রাতের খাওয়া দাওয়া করার কথা ছিল তার। কিন্তু, এর পরিবর্তে লাশ হয়ে বাড়ি ফিরতে হলো তাকে।

লিমন মাহমুদ ও মানিক নামে দুই যুবক অভিযোগ করে বলেন, তার ছিঁড়ে মাটিতে পড়ে যায়। তখন বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া ছিল। বিষয়টি রংপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর কার্যালয়ে মোবাইল ফোনে জানানো হয়। কিন্তু সংযোগ বন্ধ করা হয়নি। বিদ্যুৎ বিভাগের গাফিলতির কারণেই রিক্সা চালক ছাদেক আলীকে প্রাণ দিতে হলো। সোমবার স্বজনদের আহাজারিতে আব্দুল্যাহ্পুরের গ্রামের বাতাস ভারি হয়ে ওঠে।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করলে রংপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার নূরুর রহমান গাফিলতির অভিযোগ অস্বীকার বলেন, বিষয়টি আমাকে কেউ জানায়নি। জানালে সঙ্গে সঙ্গে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হতো।