মেইন ম্যেনু

মিঠাপুকুরে ৫৯ বছর পর দখলমুক্ত হল সাড়ে ৩ একর সরকারী সম্পত্তি

দীর্ঘ ৫৯ বছর ধরে প্রভাবশালীদের কব্জায় থাকা রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার বাণিজ্যকেন্দ্র শঠিবাড়ী বন্দরের সাড়ে ৩ একর সরকারী খাস জমি দখলমুক্ত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার বিকেলে নির্বাহি ম্যাজিট্রেটের নেতৃত্বে পুলিশের সহযোগিতায় ক্রেন দিয়ে স্থাপনাগুলো গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়।

শঠিবাড়ী দক্ষিণ বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন দুর্গাপুর মৌজায় ১নং খাস খতিয়ান ভুক্ত ৩ একর ৩০ শতক সম্পত্তির অবস্থান। প্রায় ৫৯ বছর আগে বেদখল করেন স্থানীয় বজলার রহমান সরকার নামে এক ব্যক্তি। ওই সম্পত্তিতে ইতোপূর্বে শ্মশান ছিল। কিন্তু, কৌশলে বজলার রহমান সরকার ওই জমিগুলো বেদখল করে মার্কেট নির্মাণ করেন। মার্কেটটিতে অর্ধশতাধীক দোকান ছিল।

ওইসব দোকানের বিপরীতে প্রায় দেড় কোটি টাকা জামানত গ্রহন করেন বজলার রহমানের ছেলেরা। এ বিষয়ে স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনেরা আদালতে মামলা করেন। দীর্ঘদিন উচ্চ আদালতে মামলা চলার পর অবশেষে ওই সম্পত্তি খাস খতিয়ানভুক্ত হয়। আজ মঙ্গলবার নির্বাহি ম্যাজিট্রেট ওই জমি দখল মুক্ত করেন।

নির্বাহি ম্যাজিট্রেটের দায়িত্বে ছিলেন মিন্টু বিশ্বাস ও মামুন-অর রশীদ। তারা পুলিশ নিয়ে গিয়ে ক্রেন দিয়ে ওই জমিতে থাকা প্রায় ৫০ টি দোকান ঘর গুঁড়িয়ে দেন।

এসময় স্থানীয় শতশত জনতা সেখানে ভীড় জমায়। যে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ঘটনাস্থল মহাসড়কের দুই পাশে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে সম্পত্তি দখল মুক্ত করায় স্থানীয় বাসিন্দারা সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মামুন-অর রশীদ সাংবাদিকদের জানান, আদালতের রায়ে জমিটি দখলমুক্ত করা হচ্ছে।