মেইন ম্যেনু

মিনায় হতাহতের তালিকায় বাংলাদেশি

সৌদি আরবের মিনায় পদদলিত হয়ে নিহত ও আহতদের মধ্যে বাংলাদেশি হাজিও রয়েছেন।

তবে সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে এখনও বাংলাদেশ দূতাবাসকে এই তালিকা হস্তান্তর করা হয়নি। সৌদি আরবে বাংলাদেশের হজ কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান এ কথা জানিয়েছেন।

তিনি জানান, নিহত ও আহতের সংখ্যা বাড়ছে। এ জন্য সৌদি কর্তৃপক্ষ তালিকা চূড়ান্ত করেনি। তাই পূর্ণাঙ্গ তালিকা বাংলাদেশ পায়নি।

আসাদুজ্জামান জানান, তিনি সেখানে আছেন। হাসপাতালগুলোতে খবর নিচ্ছেন। হতাহতের মধ্যে বাংলাদেশিরা আছেন। তবে কতজন তা এখনই বলা যাচ্ছে না।

তিনি আরো জানান, জামালপুরের খন্দকার মাজহারুল ইসলাম তাদের জানিয়েছেন তার মা ফিরোজা খানম মারা গেছেন। তিনি বলেন, এ ধরনের অনেক খবর তারা পাচ্ছেন। পুরো তথ্য পেলে তখন গণমাধ্যমকে জানাবেন।

এদিকে সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে সুনামগঞ্জের একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে । তার নাম জুলিয়া বেগম (৪৫)।

জুলিয়া বেগমের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন তার স্বামী বদরুল হুদা মুকুল। মৃত্যুকালে তাহার বয়স হয়েছিল ৪৫ বছর। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন নিহত জুলিয়া বেগমের বড়বোন হাজি আফিয়া চৌধুরী। নিহত জুলিয়া বেগম সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা মুকুটের ছোট ভাই বদরুল হুদা মুকুলের স্ত্রী।