মেইন ম্যেনু

মিনা ট্র্যাজেডি : নিহতের সংখ্যা ১১০০?

মিনায় বৃহস্পতিবার হজের আনুষ্ঠানিকতা হিসেবে শয়তানকে পাথর নিক্ষেপের সময় পদদলিত হয়ে ঠিক কতজন মারা গেছে, এ সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি দেখা দিয়েছে। সৌদি কর্তৃপক্ষ শনিবার জানিয়েছিল নিহতের সংখ্যা ৭৬৯। কিন্তু রোববার নিহতদের নাগরিকত্ব নিশ্চিত করতে কূটনীতিকদের কাছে ১১০০ মৃতদেহের ছবি পাঠিয়েছে। সোমবার এক প্রতিবেদনে ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ান এ তথ্য জানিয়েছে।

পাকিস্তানের পিএমএল (এন) দলের সংসদ সদস্য তারিক ফজল চৌধুরী তার দেশের হতাহত হাজিদের খোঁজ ও পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার দায়িত্বে রয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, সৌদি কর্তৃপক্ষ কূটনীতিকদের কাছে ১১০০ মৃতদেহের ছবি পাঠিয়েছে। এসব ছবি বিদেশে সৌদি দূতাবাস ও মিশনে দেখা যাবে।

তিনি বলেন, ‘পরিচয় নিশ্চিত করতে সৌদি কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিকভাবে শহীদদের এ সংখ্যা জানিয়েছে।’

তারিকের এ মন্তব্য ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের বক্তব্যেরই যেন প্রতিধ্বনি। রোববার তিনি টুইটারে বলেছিলেন, ‘হজে পদদলিত হয়ে নিহতদের ১ হাজার ৯০টি ছবি প্রকাশ করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।’

তবে ভারতীয় কূটনৈতিক ও সরকারি কর্মকর্তারা সোমবার সুষমার এই বক্তব্যের ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

এদিকে ইরান প্রথম থেকেই দাবি করে আসছে নিহতের প্রকৃত সংখ্যা আরো বেশি। দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে জানানো হয়েছে, পদদলনে ইরানের ১৬৯ হাজির মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে আরো ১০০ জন। এ ছাড়া এখনো নিখোঁজ রয়েছে তিন শতাধিক।