মেইন ম্যেনু

মির্জা ফখরুলের জামিন মঞ্জুর

মানহানির মামলায় আজ মঙ্গলবার জামিন পেলেন মূখ্য মহানগর হাকিমের আদালত। এর আগে সকালে আদালতে হাজির হন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা ও তার দলকে খুনী বলার অভিযোগে মানহানির এই মামলা দায়ের করা হয়।

দীর্ঘ ছয় মাসের বেশি সময় বন্দী জীবন কাটানোর পর উচ্চ আদালতের নির্দেশে গত জুলাইয়ের মাঝামাঝি জামিনে মুক্তি পান মির্জা ফখরুল।

এর পর দীর্ঘ দিন বিদেশে চিকিৎসার পর ঈদের আগে তিনি দেশে ফিরেন।

ঢাকা মহানগর হাকিম ইউনুছ খানের আদালতে মঙ্গলবার আত্মসমর্পন করে আইনজীবী জয়নাল আবেদিন মেজবাহর মাধ্যমে জামিন আবেদন করেন মির্জা ফখরুল। আদালত শুনানি শেষে তার জামিন মঞ্জুর করেন।

আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি এসএম নুর-ই আলম সিদ্দিকী ২০১৪ সালের ১ সেপ্টেম্বর বাদী হয়ে ঢাকা মহানগর হাকিম স্নিগ্ধা রানী চক্রবর্তীর আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।

আদালত বাদীর জবানবন্দী গ্রহণ করে পল্টন থানা কর্মকর্তাকে তদন্ত করে আইনী ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন।

ওই বছরের ২৪ আগস্ট বিকেলে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার দল আওয়ামী লীগকে খুনীর দল বলে উল্লেখ করেন। এ খবরটি ২৫ আগস্ট বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত হলে এতে বাদীর মানহানি হয়েছে বলে অভিযোগ এনে তিনি মামলাটি করেন।