মেইন ম্যেনু

মিশরে যাত্রীবাহী বিমান ছিনতাই

মঙ্গলবার সকালে মিশরের একটি যাত্রীবাহী বিমান অস্ত্রের মুখে ছিনতাই করা হয়েছে। পরে ছিনতাইকারীরা মিশর এয়ারলাইন্সের ওই বিমানটিকে সাইপ্রাসে নিয়ে যায় বলে বিবিসি জানিয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে অপহরণকারীদের পরিচয় জানা যায়নি। এছাড়া তারা কি জন্য এটি ছিনতাই করেছে সে বিষয়েও কিছু জানা যায়নি।

সরকার ও এয়ারলইন্সের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে বিবিসি আরো জানিয়েছে, মঙ্গলবার সকালে মিশরের অভ্যন্তরীণ রুটের ওই বিমানটি আলেকজান্দ্রিয়া থেকে কায়রো যাওয়ার পথে এটিকে করা ছিনতাই হয়। বিমানটিতে কমপক্ষে একজন অস্ত্রধারী রয়েছে। ছিনতাইয়ের পর দিক পরিবর্তন করে এটিকে সাইপ্রাসে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এ সম্পর্কে ইউরোপীয় কমিশনের সাবেক কর্মকর্তা আনড্রুলা ভ্যাসিলিও এক টুইটার বার্তায় বলেছেন, মঙ্গলবার সকাল সাতটার কিছু আগে এটি সাইপ্রাসের লারনাকা বিমানবন্দরে অবতরণ করে। এয়ারবাস এ-৩২০ ফ্লাইটটিতে মোট ৮২ জন আরোহী রয়েছে। পরে সাইপ্রাসের রাষ্ট্রীয় রেপিওতে এই সংখ্যা ৫৫ বলে উল্লেখ করা হয়।

আনড্রুলা ভ্যাসিলিও’র বরাত দিয়ে দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট পত্রিকাটি আরো জানিয়েছেন, ছিনতাইকারীরা কয়েকজন যাত্রীকে ছেড়ে দিতে রাজি হয়েছে। তারা কেবল কয়েকজন নারী ও শিশুকে ছেড়ে দেবে বলে জানিয়েছে। এর আগে তারা গোটা বিমানবন্দর এলাকা থেকে সমস্ত পুলিশ সরিয়ে নেয়ারও দাবি করেছে।

এদিকে সাইপ্রাসের এক কর্মকর্তা সংবাদ সংস্থা এপিকে বলেছেন, সম্ভবত বিমানটিতে একটি বোমা রয়েছে। বিমানটিতে একাধিক ছিনতাইকারী রয়েছে বলে জানিয়েছেন অন্য এক কর্মকর্তা।