মেইন ম্যেনু

মিয়ানমারের মুসলিমদের ত্রাণ প্রয়োজন : জাতিসংঘ

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার শিকার হওয়া রোহিঙ্গা মুসলিমদের ত্রাণ সহায়তা প্রয়োজন বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। সংস্থাটির ত্রাণ বিষয়ক বিভাগ গত শুক্রবার এ কথা জানিয়েছে। খবর ডননিউজের।

সংস্থাটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, মিয়ানমারে বসবাস করা ৪ লাখ ১৬ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গা মুসলিমদের ত্রাণ সহায়তা প্রয়োজন। এর মধ্যে বিভিন্ন শরণার্থী শিবিরে মানবেতর জীবন-যাপন করা ১ লাখ ৪০ হাজার রোহিঙ্গাও রয়েছেন।

সংস্থাটি বলেছে, গৃহহীন ৪০ হাজার রোহিঙ্গা উপকূলীয় রেখার ৫০০ মিটারের মধ্যে বিভিন্ন শিবিরে অবস্থান করছে। মৌসুমী বৃষ্টির কারণে তাদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

২০১২ সালে রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতন চালায় উগ্রপন্থী বৌদ্ধরা। এ সময় হাজারো মুসলিমকে হত্যা ও অগ্নিসংযোগ করা হয়। এতে গৃহহীন হয় লাখ লাখ রোহিঙ্গা।

এ ঘটনার পর থেকে মিয়ানমারে রোহিঙ্গা সঙ্কট প্রকট হয়ে উঠে। দেশটির সরকার রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব না দেওয়ায় তাদের যাযাবরের মতো মানবেতর জীবন-যাপন করতে হচ্ছে। নির্যাতনের শিকার অনেক রোহিঙ্গাই অবৈধ অভিবাসনের উদ্দেশ্যে সমুদ্রপথে ভেসে বেড়াচ্ছেন।

সম্প্রতি মানবপাচারের শিকার অনেক রোহিঙ্গা মুসলিমকে উদ্ধার ও বিভিন্ন দেশে তাদের ওপর নির্যাতন চালানো শিবিরের খোঁজ পাওয়া গেছে।