মেইন ম্যেনু

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বললেন- ভারত পরীক্ষিত বন্ধু!

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, আমাদের মুক্তিযুদ্ধকে নিয়ে ষড়যন্ত্র হচ্ছে। সরকার পতনের ষড়যন্ত্র হচ্ছে। ইহুদিরা যখন ষড়যন্ত্র করছে তখন ভারত পরীক্ষিত বন্ধু হিসেবে আমাদের পাশে আছে।

মঙ্গলবার মন্ত্রণালয়ের সামনে ভারতের দেয়া দুটি অ্যাম্বুলেন্স বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, “আমরা কৃতজ্ঞ ভারতের কাছে। সাবেক প্রধানমন্ত্রী শ্রীমতি ইন্দরা গান্ধীর কাছে, ভারতের জনগণের কাছে। যারা আমাদের মুক্তিযুদ্ধের সময় আমাদের দুই কোটি শরনার্থীকে আশ্রয় দিয়েছিলেন। আমরা কৃতজ্ঞ যে ভারতের পার্লামেন্টে বার বার মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে জনমত গঠনের জন্য কথা বলেছেন। তাদের জনগণ আমাদের মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে জনমত গঠন করেছিলেন।”

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বলেন,“আমি অত্যন্ত শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছি ভারতের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ মোদিকে। যিনি গত বছর আমাদের দেশে এসেছিলেন, তিনি বলেছিলেন, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে জনমত গঠনের তিনি কাজ করেছেন। তাই আমি নরেন্দ মোদির ভূমিকাকে স্মরণ করছি। ভারত আমাদের পরীক্ষিত বন্ধু। মুক্তিযুদ্ধের সময় তাদের অবদান কী তা আমরা সবাই জানি। ভারত আমাদের দুর্দিনের বন্ধু।”
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত হর্ষবর্ধন শ্রীলাং বলেন, “মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশের সাহসী সংগ্রাম ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। আমরা মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়ে গর্বিত।”

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সফরে এসে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বাংলাদেশে অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের সহায়তায় যে দুটি অ্যাম্বুলেন্স দেয়ার ঘোষণা দেন। সেই অ্যাম্বুলেন্স দুটির একটি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়রের হাতে তুলে দেয়া হয়। অন্যটি দেয়া হয় ন্যাশনাল ফ্রিডম ফাইটার্স ফাউন্ডেশনকে (এনএফএফএফ)। অ্যাম্বুলেন্স দুটির চাবি বাংলাদেশের পক্ষে হস্তান্তর করেন মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এবং ভারতের পক্ষে রাষ্ট্রদূত হর্ষবর্ধন শ্রীলাং।