মেইন ম্যেনু

মুসলমান ছেলেকে ভালোবেসে ৭ বছর গৃহবন্দী মেয়েটি!

প্রেম মানে জাত-কুল, মানে না ধর্ম-কর্ম। মনের মানুষটি জন্য মেয়েটিকে আটকে রাখা হয়েছে ৭ বছর ধরে।

ভালোবাসার কারণে সাত বছর গৃহবন্দী করে রাখা হয়েছে এক তরুণীকে। তার অপরাধ মুসলিম ছেলেকে ভালোবাসা।

এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের দিল্লিতে।

সম্প্রতি দিল্লির মহিলা কমিশনের সদস্যরা গিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করেছেন।

জানা গেছে, ২০০৯ সালের ঘটনা। মেয়েটির বয়স যখন ২৫ তখন সহপাঠী এক মুসলিম যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে তার। কিন্তু ধর্মের কারণে তা মানতে পারেনি মেয়েটির পরিবার।

সম্পর্কের কথা জানাজানি হলে মেয়েটিকে বাড়িতে আটকে রাখতে শুরু করে তার পরিবার। ফোন, ইন্টারনেট— কিছুই ব্যবহার করতে দেয়া হত না তাকে।

পালাতে চাইলে তার বাবা তাকে মারধর করতেন। মা আত্মহত্যার হুমকি দিতেন। শুধু তাই নয়, ছেলেটি আসলে ‘লাভ জিহাদের’ নামে তাকে ফাঁসাচ্ছে বলেও মেয়েটিকে বোঝানোর চেষ্টা করে তার পরিবার।

কিন্তু কোনো কিছুতেই ওই তরুণীকে টলাতে পারেরনি তার পরিবারের লোকজন। পরে একদিন সুযোগ পেয়ে মায়ের ফোন থেকে ওই তরুণী দিল্লির মহিলা কমিশনের হেল্পলাইনে ফোন করেন।

মহিলা কমিশনের সদস্যরা গিয়ে ওই তরুণীকে উদ্ধার করেন। বর্তমানে মহিলা কমিশনের হোমেই রয়েছেন ওই তরুণী।