মেইন ম্যেনু

মুসলিমদের এদেশে থাকতে হলে গরু খাওয়া ছাড়তে হবে

গোমাংস নিয়ে যখন ভারতজুড়ে উত্তেজনা চলছে তখন হরিয়ানা রাজ্যের বিজেপি নেতা ও মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খাট্টার বললেন, মুসলিমরা এ দেশে থাকতেই পারেন, তবে তাদের গরু খাওয়া ছাড়তে হবে। কারণ গরু এখানে ধর্মের প্রতীক।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে এই খবর প্রকাশের পর দেশজুড়ে সমাচনার ঝড় উঠেছে। যদিও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয় দাবি করছে, এই খবর সঠিক নয়। এমন কোনও কথাই বলেননি খাট্টার।

শুক্রবার ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে প্রকাশিত হয়েছে হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খাট্টারের সাক্ষাত্‍‌কার। ৬১ বছরের খাট্টার বলেছেন, দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠের কাছে গরু, গীতা ও সরস্বতী ধর্মের প্রতীক।

দাদরির ঘটনা নিয়ে তিনি বলেন, দু তরফেরই ভুল হয়েছে। এটা একটা ভুল বোঝাবুঝি। আক্রান্তরা গরুকে নিয়ে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করে মন্তব্য করেছিল। সেই মন্তব্যই আক্রমণকারীদের আবেগে আঘাত হানে।

দোষীদের শাস্তি হওয়া উচিৎ বললেও তাদের প্রতি সহানুভূতি দেখিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এই ঘটনার প্রেক্ষাপট আমাদের খতিয়ে দেখা উচিৎ। আমাদের বোঝার চেষ্টা করতে হবে কেন সে এই কাজ করেছে।’

উগ্র হিন্দুত্ববাদী সংগঠন আরএসএস এর এই চেলা মুসলিমদের হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘হতে পারে তারা মুসলিম, কিন্তু এমনটা কোথাও লেখা নেই যে, মুসলিমদের বিফ খেতেই হবে।’

গত বছর অক্টোবরে হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী হন মনোহর লাল খাট্টার। প্রায় চার দশকেরও বেশি সময় ধরে আরএসএস এর বিশেষ অনুগামী খাট্টার আইন করে তার রাজ্যে গোমাংস ব্যান করেছেন। আইন ভেঙে কেউ গরু জবাই করলে ১০ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে। আর কেউ গোমাংস খেলে তার ৫ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে বলে আইনে বলা হয়েছে।